বর্তমানে দিঘা ও সাগর থেকে আমফান অবস্থান করছে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে। পলকে স্থলভাগে প্রবেশ করবে আমফান। ইতিমধ্যেই উপকূলবর্তী এলাকাতে তাণ্ডব চালাতে শুরু করেছে আমফান। সব দিক ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে শহর কলকাতাতেও। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী কলকাতার খুব কাছ দিয়ে বয়ে যাবে আমফান। এর আগে কোনও ঘূর্ণিঝড় এতটা কা্ছে আসেনি। তাই পুনরায় স্মৃতি উষ্কে গেল ১৯৯৯ সালের। 

আরও পড়ুনঃ Cyclone Amphan live updates: বাংলায় আছড়ে পড়তে চলেছে আমফান, দিঘার সমুদ্রতট থেকে ক্রমশই কমছে দূরত্ব

মঙ্গলবার থেকেই নবান্নে দফায়. দফায় বৈঠক করা হচ্ছে। চালু রয়েছে ২৪ ঘণ্টা কন্ট্রোল রুম। কলকাতা পুরোসভার মেয়র ফিরাদ হাকিম মঙ্গলবার বিকেলেই জানিয়েছিলেন,যাঁরা ভাঙা বাড়ি বা পরিতক্ত বাড়িতে রয়েছেন তাঁদের সরিয়ে নিয়ে যেবে হবে। তড়িঘড়ি সেই কাজ শুরু হয়ে গিয়েছিল। বুধবার সকাল থেকেই আবহাওযার পরিস্থিতি খারাপ হয়ে যায়। ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে শুরু হয় মাঝারি বৃষ্টিপাত। 

কলকাতায় কান ঘেঁষে যাবে এই ঝড়। সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে পূর্ব কলকাতা। তাই ইতিমধ্যেই বাইপাসের ধারে একাধিক অস্থায়ী ও ভাঙা বাড়িতে থাকা বাসিন্দাদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সন্ধ্যের আগেই একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হল ট্রাফিক কন্ট্রোলের তরফ থেকেও। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শহরের প্রতিটা উড়ালপুল। পাশাপাশি ১২টার মধ্যে সকল মানুষকে বাড়িতে ঢুকে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। ইতিমধ্যে ঝড় ভয়াবহ আকার ঝাড়ন করেছে উপকূলবর্তী এলাকাতে। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা