ভারতের সবচেয়ে বহুল প্রচলিত ভাষাগুলিদের মধ্যে বাংলা অন্যতম। এবং ভারতের ইতিহাসে বাংলা ভাষার অবদানও যথেষ্ট। কিন্তু বাংলা ভাষা সেভাবে কখনও সম্মান পায়নি বলেই অভিযোগ। এমনকী পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলে বাংলা রাখার পক্ষে সওয়াল করা হলেও কেন্দ্র এখনও তাতে সম্মতি দেয়নি। অথচ বাংলা ভাষার গরিমা-কে এবার স্বীকার করে নিল সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে এখন থেকে সুপ্রিম কোর্টে মামলার রায় বাংলা ভাষাতেও পাওয়া যাবে। 

সপ্তাহ দুয়েক আগে বাংলা্য় রায়ের কপি পাওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টে আরজি করেন কংগ্রেসের আব্দুল মান্নান ও সিপিএম-এর সুজন চক্রবর্তী। সুপ্রিমকোর্টে রায়ের কপি বের করতে ভাষার একটি তালিকায় নাম তুলতে লাগে। বাংলাকে সেই তালিকায় রাখার কথা বলা হয়েছিল। অবশেষে সুপ্রিমকোর্ট সেই আবেদন মেনে নিয়েছে। বাংলা ভাষাকে স্বীকৃতি দিতে সিপিএম ও কংগ্রেসের আবেদনের সঙ্গে সহমত পোষণ করেছিল  তৃণমূল কংগ্রেসও। 

একটি অ্যাপের মাধ্যমে সুপ্রিমকোর্টের রায় ইংরাজি থেকে বাংলায় অনুবাদ হবে। দুই আবেদনকারিদের মধ্যে একজন সুজন চক্রবর্তী। তিনি জানিয়েছেন, ' প্রথমে আমি ও মান্নাদা-ই কথাটা বিধানসভায় তুলেছিলাম। অন্য সব ভাষার মত বাংলাও একটা সমৃদ্ধশালী ভাষা। তারপরেই আমারা বাংলা ভাষার এই স্বীকৃতির জন্য আবেদন করি। আর আমাদের দাবী মেনে নিয়ে তা এত তাড়াতাড়ি স্বীকৃতি দেওয়ায় খুশি সকলেই।' বাংলা ভাষা স্বীকৃতি পেলেও পশ্চিমবঙ্গের পরিবর্তিত নাম বাংলা এখনও স্বীকৃতি পাচ্ছে না। বারবার আবেদনের পরেও এখনও অপরিবর্তিত পশ্চিমবঙ্গের নাম। তবে বাংলা ভাষার এই স্বীকৃতি আশার আলো দেখাচ্ছে। মনে করা হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলও হবে খুব শীঘ্রই।