করোনার জেরে লকডাউন এবং আমফান ঝরে টালমাটাল সাধারণ মানুষের আর্থিক অবস্থা তার মধ্যেই সম্পত্তি কর আদায় বিধান নগর পৌরনিগমের।

চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিধান নগর পৌরনিগমের অন্তর্গত এলাকায় দীর্ঘদিনের সম্পত্তির কর বাকি পরে আছে। বিধান নগর পৌরণগমের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই বিধান নগরের সব কাউন্সিলরদের কে সেই বকেয়ার একটি আনুমানিক নথি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। কাউন্সিলররা যাতে বাসিন্দাদের থেকে সেই বকেয়া যথাশীঘ্রই আদায় করে। সেই নথি অনুযায়ী  আজ বিধান নগর পৌরনিগমের ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে হাতজোড় করে বাসিন্দাদের কাছে অনুরোধ করে যাতে তারা শীঘ্রই পৌরনিগমের হাতে কর বাবদ বকেয়া টাকা তুলে দেয়। 

অন্যদিকে বিধান নগরের বাসিন্দাদের একাংশ অভিযোগ করছে তারা ঠিকমতো পৌর পরিষেবা পান না।  আমফান ঝড়ের পরে বিধান নগর পৌরনিগমের অন্তর্গত বেশকিছু ওয়ার্ডে পানীয় জলের সমস্যা বহুদিন কেটে যাওয়ার পরেও বহু রাস্তাঘাট এখনো সচল হয়নি। এছাড়াও করোনার জেরে লকডাউন ও আম ফানি ঝড়ের পর সাধারণ মানুষের আর্থিক অবস্থা টালমাটাল অবস্থায় এই মুহূর্তে এই বকেয়া আদায়ের মতো সামর্থ্য অনেকের নেই আরো একটু সময় যদি দেয় পৌরনিগম তবে উপকৃত হবে সাধারণ মানুষ এরকমই বলছেন বিধাননগরের বাসিন্দাদের একাংশ।