গ্রাহকের অজান্তে ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে ব্যাংক অ্য়াকাউন্ট।সেই চক্রের এক মাথাকে গ্রেফতার করল বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ। সল্টলেকের বেসরকারি ব্যাংকের গ্রাহকের এসএমএস ও মেল আইডি চেঞ্জ করে এক গ্রাহকের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রায় তিন কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ গ্রেফতার এক। অভিযুক্তের নাম সমীরণ সাহা (খরদহ)। ধৃত অ্যান্টিক জিনিসের ব্যবসা করেন। পুলিশের অনুমান, এই ঘটনায় ব্যাংকের কেউ জড়িত আছে, না হলে কী করে এই তথ্য তার হাতে গেল। তার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর,৩০/৭/২০২০ তারিখে সল্টলেকের সেক্টর ফাইভের বেসরকারি ব্যাংকের রিজিওনাল ম্যানেজার (আই সি আই সি ব্যাংক) থানায় অভিযোগ করে যে, তাঁর বাগুইআটি এলাকায় ব্রাঞ্চ থেকে এক গ্রাহকের অ্য়াকাউন্ট থেকে প্রায় তিন কোটি টাকা বিভিন্ন অ্য়াকাউন্টে ট্রান্সফার হয়েছে। সেই মতো পুলিশ তদন্তে নামে। এরপর বিধান নগর সাইবার ক্রাইম থানা তদন্ত শুরু করে। তদন্তে নেমে পুলিশ খরদহের বাসিন্দা সমীরণ সাহাকে গ্রেফতার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পারে যে,অভিযুক্ত সমীরণ কোনওভাবে ওই ব্যাংকের গ্রাহকদের ডিটেলস সংগ্রহ করে। এরপর ব্যাংকে গ্রাহক পরিচয় দিয়ে সমস্ত তথ্য দিয়ে জানায় কোনও কারণে তার ব্যাংকের এসএমএস অ্য়ালার্ট নম্বর ও মেল আইডি চেঞ্জ করতে হবে। সেই মতো চেঞ্জ হয়ে যায়। এরপর একটি অ্য়াপ ডাউনলোড করে (আই মোবাইল অ্যাপ)। সেখান থেকে ওই গ্রাহকের অ্য়াকাউন্ট থেকে বিভিন্ন অ্য়াকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করে নেয়। এই ভাবেই সে প্রতারণা করত। যেহেতু এসএমএস অ্য়ালার্ট নম্বর চেঞ্জ হয়ে যেত, সেই কারণে গ্রাহক কিছুই জানতে পারত না।

এখানেই প্রশ্ন এই অভিযুক্ত কীভাবে ব্যাংকের গ্রাহকের ডিটেলস পেয়ে যেত। তবে কি এই সবকিছুর পিছনে ব্যাংকের কেউ জড়িত আছে ? সেই বিষয় তদন্ত করে দেখছে তদন্তকারী পুলিশ কর্তারা। ধৃতকে বিধান নগর কোর্টে তোলা হচ্ছে।  বাকি আর কারা জড়িত আছে সেই বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হবে।