রাজ্য়ে কনটেইনমেন্ট জোনে লকডাউন নিয়ে এবার মমতার সরকারকেই কাঠগড়য় তুললেন বিজেপির রাজ্য় সভাপতি। দিলীপ ঘোষের মতে, মমতার নতুন করে লকডাউন ঘোষণার মধ্যে অন্য কোনও অভিষন্ধি রয়েছে। এটা পুরোপুরো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। 

বৃহস্পতিবার দিলীপ ঘোষ বলেন, প্রথম থেকে নিজেই লকডাউন মানেননি মুখ্যমন্ত্রী । তাঁর দেখাদেখি দলের অন্যান্যরাও এই লকডাউন মানেননি। তাই পশ্চিমবঙ্গে সঠিকভাবে লকডাউন কখনও হয়নি। সাধারণ মানুষের সুরক্ষায় লকডাউনের সব বিধি মানা দরকার। অতীতে বিশেষজ্ঞ মুখ্যসচিব যা পরামর্শ দিয়েছিলেন, তার তোয়াক্কাই করেননি মুখ্যমন্ত্রী। এখন নতুন করে লকটাউন করছেন কেন ?

এদিন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ বলেন,  যে ভাবে ব্যাপক হারে সংক্রমণ বাড়ছে লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব ছাড়া এটা সামলানো সম্ভব নয়। লকডাউন শুধু মুখে বললে হবে না সেটা ব্যবহারিক ভাবে লাগানো উচিত। গত তিনমাস ধরে পশ্চিমবঙ্গে খাতায় কলমে লকডাউন চলছে, কিন্তু বাস্তবে তা ছোখে ধরা পরেনি। ফলে যাও হওয়ার তাই হয়েছে। 

স্বাস্থ্য় দফতেরের বুলেটিন বলছে, প্রতিদিন ১০০০ এর ওপর সংক্রমণ হচ্ছে রাজ্য়ে। বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন জুলাই-এর মাঝামাঝি সর্বোচ্চ পর্যায়ে যাবে সংক্রমণ। এখন রাজ্য়ে সেটাই হয়েছে। এইসব জানার পরও যদি ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, স্বাভাবিকভাবেই ব্যাপক সংক্রমণ বাড়বে। যখন সরকার বলেছেন সেটা পাবলিকের মানা উচিত আর এটা যাতে সবাই মানে সেটা সরকারের দেখা উচিত।