ডেঙ্গু নিয়ে বিজেপির মিছিলকে কেন্দ্র করে উত্তাল চেহারা নিল কলকাতা পুরসভা চত্বর। বিজেপির মিছিলকে আটকাতে চলল ব্যাপক মারধর। লাঠিচার্জের পাশাপাশি জলকামান চালিয়ে বিজেপির মিছিলকে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করল পুলিশ। অভিযোগ পুলিশের মারধর থেকে বাদ যায়নি মহিলারাও। মহিলাদেরও চ্যাং দোলা  করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিজেপি যুব মোর্চার নেতাদের অভিযোগ, দলের মহিলা কর্মীদের গায়ে হতা দিয়েছে পুরুষ পুলিশ। টেনে হিঁচড়ে তাঁদের গাড়িতে তোলা হয়েছে।

অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্র জানান, পুরসভা অভিযানের নির্দিষ্ট স্থান পর্যন্ত যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও তার আগেই তাঁদের মিছিল আটকে দেওয়া হয়। তার আগেই গ্রেফতার করা হয় তাঁদের। এদিন বিজেপির যুব মোর্চার মিছিলে মুখ্য়মন্ত্রীর কুশ পুতুল পোড়ায় দলের কর্মী সমর্থকরাা। এক সময় পুলিশের ব্যারিকেডের দিকে জ্বলন্ত কুশপুতুল নিয় ছুটে য়ায় উত্তেজিত বিক্ষোভকারীরা। দলের সাধারণ সম্পাদক রাজু বন্দ্য়োপাধ্য়ায় জানান, রাজ্য়ে ডেঙ্গুর জেরে সাধারণ মানুষের প্রাণ যাচ্ছে। ডেঙ্গু রাজ্যে মহামারির আকার নিয়েছে। তাতেও হেলদোল নেই মুখ্য়মন্ত্রীর। 

আবর্জ্না পরিষ্কার করতে কেন্দ্রীয় সরকার টাকা দিচ্ছে। সেই টাকা থেকে কাটমানি খাচ্ছে রাজ্য় সরকার। যার ফল ভোগ করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। আগে ডেঙ্গুতে রাজ্য়ের মানু, মারা গেলে অজানা জ্বর বলে গুজব ছড়ানো হয়েছে। চার বছর পর এখন ডেঙ্গু রাজ্য়ে মহামারির আকার নিয়েছে। একনও সেই অজানা জ্বর বের করতে পারল না রাজ্য় সরকার। কতদিন আর মানুষের মধ্য়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো যায়।