বৃহস্পতিবার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম পর্যায়ের উদ্বোধন। এদিকে উদ্বোধনের অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রে নাম নেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। অনুষ্ঠানের জন্য মঞ্চে অতিথিদের জন্য রেলের তরফে যে আসন  রাখা হয়েছে , সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর জন্য কোনও আসন বরাদ্দ রাখা হয়নি। 

আরও পড়ুন,কলকাতা মেট্রো ছত্রিশ ছুঁইছুঁই, ছবিতে ফিরে দেখা যাক সেই ইতিহাস

সূত্রের খবর,  আজ বৃহস্পতিবার, ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর যাত্রা সূচনা করেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। সেখানে সম্মানীয় অতিথি হিসেবে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ রাষ্ট্রমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এদিকে মেট্রো রেলের তরফে জানানো হয়েছে, এই ধরনের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর মতো প্রশাসনিক কর্তাদের মন্ত্রক থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। এদিকে নবান্ন সূত্রের দাবি, রেলের এই অনুষ্ঠানের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর নামে কোনও আবেদনপত্র তারা পায়নি। রীতি মেনে স্থানীয় সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার, স্থানীয় বিধায়ক সুজিত বসু এবং বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে রেল। আমন্ত্রণপত্রেও তাঁদের নাম আছে। এদিকে রাজ্য়ের মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম নেই।

 

আরও পড়ুন, বৃহস্পতিবার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর শুভ উদ্বোধন, থাকছে একাধিক সুবিধা

সূত্রের খবর, এক মাস আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কলকাতায় এসেছিলেন কলকাতা বন্দরের দেড়শো বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। তার আগের দিন কেন্দ্রের জাহাজমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে নবান্নে গিয়েছিলেন। কিন্তু মেট্রোর ক্ষেত্রে তার ব্য়তিক্রম ঘটেছে। তৃণমূলের আমন্ত্রিত মন্ত্রী, মেয়র, সাংসদরা, ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর  উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাবেন কি না, বুধবার গভীর রাত পর্যন্ত তা নিশ্চিত করা যায়নি। জানা গিয়েছে, একজন শুধু জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী যাবেন না। মুখ্যমন্ত্রীকে অসম্মান করাতেই তাঁর এই সিদ্ধান্ত।