বছরের প্রথম উইকএন্ড, ভরে উঠেছিল শনিবার রাতের শহরতলীর রেস্তোরা-পাব। পার্কস্ট্রিটের এক নাম করা রেস্তোরাতে বন্ধু জন্মদিন উপলক্ষ্যে শনিবার রাতে হাজির হয়েছিলেন প্রাক্তণ তৃণমূল সাংসদ ও বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। একই রেস্তোরাতে নিজের বান্ধবীকে নিয়ে এদিন গিয়েছিলেন কসবার বাসিন্দা সুরেশ রায়। সেই রোস্তারোতেই ঘটা একাধিক ঘটনার বিবরণ জানিয়ে রবিবার ভোরে তিনি পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান। 

আরও পড়ুনঃ মানুষের কাছে গিয়ে গিয়ে দেওয়ালেন মিসড কল, নাগরিক আইন নিয়ে রাজপথে রাহুল

সুরেশ রায় জানান, শনিবার রাতে রেস্তোরাতে অনুপম হাজরাকে দেখতে পান তিনি। তাঁকে দেখে একটি ছবি তোলার অনুরোধ জানিয়েছিলেন সুরেশ। প্রথম রাজিও হন অনুপম হাজরা ও ছবি তোলেন। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই অনুপম হাজরা ও তাঁর দেহ রক্ষী হাজির হন সুরেশ ও তাঁর বান্ধবীর টেবিলের সামনে। তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি কেন ছবি তুলেছেন এবং শুরু হয় গালিগালাজ। ভেঙে দেওয়া হয় তাঁর ফোন, এমন কি তাঁর বান্ধবীকেও কুকথা শোনানো হয়। এখান থেকে বিষয়টি এমন পর্যায় পৌঁছায় যার ফলে পুলিশে লিখিত অভিযোগ করেন সুরেশ রায়। 

রবিবার সকালে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সুরেশের অভিযোগের ভিত্তিতে, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪১, ৩২৩, ৩৭৯, ৩৫৪, ৫০৬ ও ৪২৭ ধারায় অনুপমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে অনুপম হাজরার গলায় অন্য সুর। তিনি জানান, বন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষ্যে এদিন হোচিমিনের সরণির পানশালাতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে তাঁর দেহ রক্ষীরা লক্ষ্য করেন লুকিয়ে লুকিয়ে ভিডিও তুলছেন সেই ব্যক্তি। বর্তমানে এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে শেক্সপিয়র থানার পুলিশ।