রাজ্য়ের সঙ্গে করোনায়  মৃতের সংখ্যা নিয়ে কেন্দ্রের সংঘাত জারি থাকল। পশ্চিমবঙ্গের একদিনের মৃতের সংখ্য়া বদলে দিল গোটা দেশের করোনার পরিস্থিতি। নবান্ন থেকে বিকেলে স্বরাষ্ট্র সচিবের প্রেস ব্রিফিংয়ে মিলল না সংখ্যাটা। রাজ্য় সরকার ৬৮ বললেও স্বাস্থ্য়  মন্ত্রক জানিয়ে দিল, রাজ্য়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১৩৩।

এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের যুগ্মসচিব লব আগরওয়াল বলেন, দু-একটি রাজ্য থেকে সময়ে তথ্য আসেনি। কেন্দ্রের তরফে বারবার তাদের জানানো হয়েছে। তারপর তাদের কাছ থেকে সঠিক তথ্য এসেছে। সেই রিপোর্ট যোগ করতেই দেশে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা একদিনে সবথেকে বেশি দেখাচ্ছে। 

দেশে করোনার পরিস্থিতি বলছে, ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবথেকে বেশি হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৯০০ জন আক্রান্ত ও ১৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই পরিসংখ্যানের পরেই প্রশ্ন উঠেছে, হঠাৎ করে ভারতে একদিনে মৃত্যু এতটা কী ভাবে বাড়ল। যার জবাবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক এই যুক্তি দিয়েছে।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, মুখে পশ্চিমবঙ্গের নাম না বললেও দু-একটি রাজ্য় বলতে আদতে পশ্চিমবঙ্গের দিকে ইঙ্গিত করেছেন লব অগরওয়াল। কারণ ২৪ ঘণ্টা আগে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিনে পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৩৫। আজ সকালে তা ১৩৩। অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র এই রাজ্যেই মৃত্যুর সংখ্যার হিসেব ৯৮ বেড়েছে। গোটা দেশে বেড়েছে ১৯৫। অর্থাৎ গোটা দেশে মৃত্যুর অর্ধেক এই রাজ্যেই দেখানো হয়েছে। তার সঙ্গে মহারাষ্ট্রে ৩৫ ও গুজরাতে ২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে ২৪ ঘণ্টায়। এই তিন রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মোট মৃত্যু দেখানো হয়েছে ১৬২। অর্থাৎ বাকি সব রাজ্য মিলিয়ে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৩ জনের।