আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছে কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের। এর মধ্যে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শোভন। নানান ব্যস্ততার কারণে নিজের ওয়ার্ডে তাঁকে দেখাই যায় না। এদিকে কলকাতা পুরসভার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডে  ক্রমেই বাড়ছে ডেঙ্গির আতঙ্ক। অবস্থা সামলাতে সেই ময়দানে নামলেন স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। 
 
কলকাতা পুরসভার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ড। একদা ভিভিআইপি এই ওয়ার্ড এখন প্রায় অভিভাবকহীন। এলাকার কাউন্সিলর তথা কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের দেখাই পান না স্থানীয় বাসিন্দারা। এর মধ্যে ডেঙ্গুর প্রকোপে নাজেহাল অবস্থা এলাকাবাসীর। চলতি মাসেই পঞ্চাননতলার এক মহিলরা মৃত্যু হয়েছে  ডেঙ্গুতে। তারপরও অবস্থার কোনও উন্নতি হয়নি। এখনও এলাকার দশ থেকে বারোটি পরিবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত। 

খাতায় কলমে বর্ষা শেষ হয়ে গিয়েছে। পড়ে গিয়েছে দেবীপক্ষ।  পুজোর মরসুমেও ডেঙ্গুর প্রকোপ না কমায় আতঙ্কে ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। এখনও এলাকার বহু বাড়ির বাসিন্দারাই জ্বরে আক্রান্ত। কাউন্সিলরের অনুপস্থিতিতে পুরসভাও কোনও কাজ করছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। 

পঞ্চানন তলার রাস্তার ধারে একটি ফাঁকা জমি কার্যত ডাস্টবিনে পরিণত হয়েছে। সংলগ্ন অঞ্চলের মানুষও এখানে রাতের অন্ধকারে ময়লা ফেলে যান বলে অভিযোগ। পুরসভাকে বহুবার বলেও জমিটি পরিস্কার করা যায়নি। আর এই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশেই বৃদ্ধি পাচ্ছে ডেঙ্গুর মশা। উপায় না দেখে সোমবার রাস্তা অবরোধ করেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন শোভনপত্নী রত্না চট্টোপাধ্যায়। পুরকর্মীদের দিয়ে শেষপর্যন্ত তিনিই ময়লা পরিস্কার করান।