ভার্চুয়াল প্রচারের দিন শেষ। এবার সরাসরি মাঠে নামার ডাক দিল বিজেপি। ২১শের বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে আগামী ৪ সেপ্টেম্বর রাজ্য় গণতন্ত্র বাঁচাও দিবসের ডাক দিলেন বিজেপির রাজ্য় সভাাপতি  দিলীপ ঘোষ। কর্মসূচি অনুযায়ী, ওই নির্দিষ্টি দিনে জেলায় জেলায় বিডিও অফিসের সামনে গণতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভ  দেখাবেন বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। 

শুরু হয়ে গেল রণডঙ্কা বাজানোর কাজ। নিউটাউনে নিজের বাড়িতে বসেই মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিলেন দিলীপ ঘোষ। রাজ্য় বিজেপির  কান্ডারির অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে মমতার শাসনে গণতন্ত্র ধব্ংস হয়েছে। পরিবর্তনের নাম করে আসলে মানুষের কণ্ডরোধ করেছে তৃণমূলের সরকার। কোথাও শাসক দলের বিরুদ্ধে কিছু বললেই তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ প্রশাসনকে এগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। শাসক দলরে এই  রোষ থেকে বাদ পড়েননি  সাংবাদিকরাও। 

আগে সোশ্য়াল মিডিয়ায় বলার সুযোগ থাকলেও এখন সেখানেও ভয় দেখানো হচ্ছে। কেউ কোনও সরকার বিরোধী পোস্ট করলেই তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরে সেখানে প্রতিবাদীকে অস্ত্র কেস দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। গণতন্ত্রের নামে রাজ্য়ে এখন প্রহসন চলছে। যা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। দিলীপবাবুর  অভিযোগ,  অতীতেও দেখা গিয়েছে, লকডাউনে তৃণমূলের নেতারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অথচ বিজেপির লোকজন কাউকে সাহায্য় করতে গেলে বা দুর্নীতির প্রতিবাদ করতে নামলেই গাড়ি আটকেছে পুলিশ। জোর করে নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে।