'রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশকারী নয়, প্রধানমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এলেই বহিরাগত'। তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়ের পাল্টা জবাব দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বুধবার  দিল্লি গিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্ট্যান্ডিং কমিটির হোম অ্য়াফেয়ার্সের মিটিংয়ে যোগ দিয়ে রাতে শহরে ফেরেন তিনি।

'রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশকারী নয়'


প্রসঙ্গত, বুধবার বিজেপিকে নিশানা করেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। তিনি বলেন বহিরাগতরা অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। সেটা বন্ধ করতে হবে।' বাম জমানার কথা তুলে সুখেন্দুশেখর রায় বলেন,'তখন বিধ্বস্ত-ত্রস্ত বাংলা। রাজ্য়ের স্থিতবস্তা ফিরিয়েছেন মমতা বনদ্য়োপাধ্যায়। বাংলার পুনর্গঠন করেছেন। এদিকে জেলাগুলিকে ৫ টি জোনে ভাগ করে 'পঞ্চ পান্ডব'কে দায়িত্ব দিচ্ছে বিজেপি।  সেই প্রসঙ্গে সুখেন্দু রায় বলেন, 'বাংলায় বহিরাগতরা অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। তা রুখতে হবে। ' এরপরেই দিলীপ পাল্টা আক্রমণ করে বলেন, 'রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশকারী নয়, প্রধানমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এলেই বহিরাগত'। 

'লোকসভায় জোট নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে'

অপরদিকে, আগামী নির্বাচনে বাম কংগ্রেস জোট ক্ষমতায় আসবে অধীর-বিমান। এর পরিপ্রেক্ষিতে দিলীপ ঘোষ জানান, 'হ্যাঁ গতবারেও জোট আসছিল কিন্তু গত লোকসভায় জোট নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। আগে তাও ৩২ শতাংশ ভোট ছিল। এখন সেটা ১৩ শতাংশে নেমে এসেছে। পশ্চিমবঙ্গের লোক পেছনে তাঁকাতে রাজি নয়। তাঁরা সবাইকে সুযোগ দিয়েছেন সবাই তাদের স্বপ্ন পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন। এবার বিজেপির পালা বিজেপিকে ভরসা করে লোকসভায় লোক ভোট দিয়েছেন। আর বিজেপির যে আন্দোলন কার্যক্রম হচ্ছে তাঁতে মানুষের ব্যাপক ভিড় হচ্ছে, সেটা বোঝাই যাচ্ছে দেখে'।