শুক্রবার দুপুর থেকেই টানা বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন শহর কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলা। গাঙ্গেয় উপত্যকা অঞ্চলে সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপ ও মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকার ফলে ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয় শুক্রবার থেকে। জলে থই থই কলকাতার বিভিন্ন এলাকা। ব্যহত যান চলাচল। শুক্রবার রাত থেকেই কলকাতা বিমান বন্দরে ব্যহত পরিষেবা। রানওয়েতে জল থাকার জন্য বিমান ওঠানামায় সমস্যা তৈরি হয়।

শুক্রবার থেকেই বেশ কয়েকটি বিমান ওঠানামায় সমস্যা হয়। খারাপ আবহাওয়ার জন্য বাতিলও হয় কয়েকটি বিমান। শনিবারও ভারী বৃষ্টির ফলে সকাল থেকেই ভোগান্তি বিমান যাত্রীদের। এদিন দিল্লিগামী দুটি বিমান দেরিতে ছাড়ে। অ্যাপ্রোন এরিয়ায় জল জমে থাকার জন্য বিমান অবতরণেও সমস্যা দেখা দেয়। খারাপ আবহাওয়ার ফলে তিনটি বিমান সঠিক সময় অবতরণে  সমস্যা দেখা যায় শনিবার। 

আরও পড়ুনঃ জলমগ্ন কলকাতা! আগামী ৪৮ ঘণ্টা কেমন থাকবে আবহাওয়া

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী শনিবার বেলা থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। শুক্রবার রাত পর্যন্ত কলকাতায় বৃষ্টি হয়েছে ১০০ মিলিমিটার। আগামী ২৪ ঘন্টায় ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রাজ্যের বিভিন্ন জেলায়। উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গেও থাকছে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। ব্যহত যান চলাচলও। রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা কম, ট্রাফিস নিয়ন্ত্রণে থাকলেও যানজট দেখা দিয়েছে বেশ কিছু এলাকায়।