প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা আগের তুলনায় অনেকটাই স্থিতিশীল। তবে এখনও তাঁকে কড়া পর্যবেক্ষণের মধ্যেই রাখা হয়েছে। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার কথা জানাতে গিয়ে শনিবার সকালে এমনই দাবি করা হয়েছে উডল্যান্ডস হাসপাতালের পক্ষ থেকে। 

তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে শুক্রবার রাতে উডল্যান্ডস হাসপাতালে ভর্তি করা হয় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে। তাঁর রক্তে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণও অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। তার সঙ্গে রক্তাল্পতাতেও ভুগছিলেন বুদ্ধদেব। 

প্রাথমিকভাবে তাঁকে অ্যান্টিবায়োটিক ছাড়াও অক্সিজেন দেওয়া হয়। এছাড়াও বাইপাপ ভেন্টিলেশনেও রাখা হয় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে। রাতেই তাঁকে এক ইউনিট রক্ত দেওয়া হয়। এ দিন সকালে আরও এক ইউনিট রক্ত দেওয়া হয় বুদ্ধদেবকে। 

হাসপাতালে ভর্তি করার পরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর চিকিৎসায় একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়। চিকিৎসায় সাড়া দিতেও শুরু করেন তিনি। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সময় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর রক্তচাপও অনেকটা কম ছিল। এ দিন সকালে তাঁর রক্তচাপও স্বাভাবিক হয়েছে। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রাও বেড়েছে। শারীরিক অন্যান্য মাপকাঠিও যথেষ্ট স্থিতিশীল বলেই জানানো হয়েছে। কী কারণে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শরীরে রক্তাল্পতা তৈরি হল, তা জানতেও পরীক্ষা, নিরীক্ষা চলছে। 

আরও পড়ুন- হাসপাতালে ভর্তি পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, দেখা করতে গেলেন মমতা

এখনও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে আইসিইউ-তেই রাখা হয়েছে। সাত সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডও তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির উপর  টানা নজর রেখে চলেছেন। এ দিন সকালেও তাঁকে দেখতে হাসপাতালে যান সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম। পরে তিনি সাংবাদিকদের জানান, বাড়ি ফিরতে চাইছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।