কিছুটা হলেও স্বাস্থ্য উন্নতি হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের। তাঁকে ভেন্টিলেটর থেকে বার করা হয়েছে। বাইপ্যাপ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছে তাঁকে। হাসপাতাল সূত্রে খবর চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তিনি। এদিন মেয়ে ও স্ত্রীর সঙ্গে কথাও বলেছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তাঁর সঙ্গে একজনকে কেবিনে থাকার অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলেও সূত্রে খবর। 


সিপিএম নেতা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের চিকিৎসক কৌশিক চক্রবর্তী জানিয়েছেন, কিছুটা হলেও সংকট কেটেছে। তাঁকে যখন হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল তখন শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ ছিল কম। তাই পরিবারের সদস্যদের অনুমতি নিয়ে তাঁকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিল। তবে প্রথম থেকে চিকিৎসকা তাঁকে ভেন্টিলেটর থেকে বার করে আনার চেষ্টা করছিলেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। শুক্রবার সকাল থেকেই তাঁর ঘুমের ওষুধ বন্ধ করে দেওয়া হয় বলেও জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিন বেলা সাড়ে এগারোটা নাগাদ তাঁকে ভেন্টিলেটর থেকে বার করা হয় বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তাঁকে বাইপ্যাপে রাখা হয়। বাইপ্যাপ তাঁর বাড়িতে চলত বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। 

দীর্ঘ দিন ধরেই সিওপিডি সমস্যায় ভুগছিলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত বুধবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। তার চিকিৎসাক জন্য ১১ সদস্যের একটি মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। সেই থেকেই তাঁকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিল। শুক্রবার তাঁকে রাখা হয় বাইপ্যাপে।