এবার পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে 'দ্বন্দ্ব' বেধে গেল ভারতীয়  রেলের। ইন্ডিয়ান  রেলওয়ের ওই টুইটের পাল্টা জবাব দিলেন রাজ্য়ের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্য়োপাধ্যায়। শ্রমিকদের ভিন্ রাজ্য থেকে ফেরানো নিয়ে রেল মন্ত্রকের টুইটকে বিভ্রান্তিকর ও ভুল বলে দাবি করলেন তিনি। শনিবার রাতে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিবের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে দাবি করা হয়েছে, রেল মন্ত্রকের করা টুইটে যে ক’টি ট্রেনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে, সেগুলির অনুমোদন দিয়ে, সেগুলির কথা সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলিকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেই সিদ্ধান্তের কোনও বদল হয়নি।

শনিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখে শ্রমিকদের ঘরে ফেরা প্রসঙ্গে একাধিক অভিযোগ তুলেছিলেন৷ সেখানে তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা এ রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গ অসহযোগিতা করছে৷ এরপরই পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে চড়তে শুরু করে রাজনীতির পারদ। 

পরে রেল মন্ত্রক জানায়, পশ্চিমবঙ্গের তরফে শ্রমিক ট্রেন চেয়ে কোনও আবেদনই আসেনি। শনিবার রাত ৯ টা নাগাদ রেল মন্ত্রকের তরফে টুইট করে বলা হয়, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ অনুরোধ করার পর এই অনুমতি দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এর মধ্যে দুটি ট্রেন পাঞ্জাব থেকে, দুটি ট্রেন তামিলনাড়ু থেকে, ৩ টি বেঙ্গালুরু ও ১ টি তেলেঙ্গানা থেকে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে রওনা দেবে।

তবে ওই একই টুইটে রেলমন্ত্রক আরও জানিয়েছে, মহারাষ্ট্র থেকে পশ্চিমবঙ্গে কোনও শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ঢুকতে দিতে রাজি হয়নি পশ্চিমবঙ্গ সরকার। অথচ মহারাষ্ট্র থেকে অন্তত ১৬ টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন বাংলায় পাঠানো প্রয়োজন। ৬টির জন্য রাজ্যের অনুমতি চাওয়া হয়েছে। কিন্তু মহারাষ্ট্র থেকে একটি ট্রেনও বাংলায় ঢোকার অনুমতি মেলেনি। যার পাল্টা টুইট করেন রাজ্য়ের স্বরাষ্ট্রসচিব।