গরমে প্রাণ ওষ্ঠাগত কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের মানুষের। উত্তরবঙ্গের অবস্থা বানভাসি হলেও , দক্ষিণবঙ্গের মানুষ এখনও বর্ষার বৃষ্টি থেকে বঞ্চিত। তার উপর বাতাসে ব্যাপক পরিমাণে আর্দ্রতা। তাই সকাল থেকে রাত গলদঘর্ম অবস্থাতেই কাটাতে হচ্ছে মানুষকে। তবে এর মধ্যেই কিছুটা স্বস্তির খবর দিল হাওয়া অফিস। 

আলিপুর হাওয়া অফিস জানিয়েছে, উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ২৩ ও ২৪ জুলাই ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হবে আলিপুরদুয়ার, মালদহ ও দুই দিনাজপুরে। ২৫ জুলাই থেকে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ বেশ কিছুটা কমবে বলে জানা গিয়েছে। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, মৌসুমী অক্ষরেখা হিমালয়ের উপরে দিয়ে গিয়েছে বলেই এই বৃষ্টি। 

আরও পড়ুনঃ গরমে হাঁসফাঁস জারি! আরও খারাপ খবর দিল হাওয়া অফিস

অন্যদিকে দক্ষণিবঙ্গে আজ মঙ্গলবার বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে বীরভূম,মুর্শিদাবাদ, বাঁকুড়া,পশ্চিম বর্ধমান,পুরুলিয়ায় আজ হালকা বৃষ্টি হকে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিসের অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে কাল, অর্থাৎ ২৪ জুলাই থেকে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে ২৬ ও ২৭ জুলাই পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে বেশি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই বৃষ্টির মূল কারণ হল, একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে। এরফলেই ক্ষণিকের বৃষ্টিতে স্বস্তি পাবে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। 

প্রসঙ্গত, জুলাই মাসের শেষে এসেও বৃষ্টি না হওয়ায় বাঙালির কপালে ভাঁজ পড়ছে। এরা আতঙ্কিত, পুজোর সময়ে বৃষ্টি নিয়। ইতিমধ্যে বাঙালির পুজোর বাজার শুরু হয়ে গিয়েছে। তাই বৃষ্টি এসে পুজো মাটি করে দেবে কি না সেই নিয়ে বেশ চিন্তায় পড়েছে বাঙালি।