চন্দ্রকোনা থেকে নৈহাটি বারবার জয় শ্রীরাম স্লোগানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়েকে বিঁধতে চেয়েছে বিজেপি সমর্থকরা। তাঁরা সাফল্য পেয়েছেন। চটে লাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রীতিমতো তেড়ে গিয়েছেন তাঁদের দিকে।  গ্রেফতার হয়েছে বিজেপির ১০ জন। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইমেজকে ভাঙন ধরাতে জয় শ্রীরামকেই হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়ে ফেলেছে বিজেপি। মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়ের মুখোমুখি হলে তিনিও বলবেন জয় শ্রীরাম। আরও এক ধাপ উঠে অর্জুন সিংহ সিদ্ধান্ত নেন জয় শ্রী রাম লেখা দশ লক্ষ পোস্টকার্ড মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঠাবেন।

এবার ফের অর্জুনের গড়েই জয় শ্রীরাম ভূত ধাওয়া করল মমতাকে। তবে এবার কনভয়ে নয়। মমতার প্রিয় বিশ্ববাংলার লোগোর পাশে দেখা গেল জয় শ্রীরামকে। 

মাদরাল হনুমান মন্দিরে বিশ্ব বাংলা লোগোর উপরে রাম লিখে দেওয়ার অভিযোগ উঠল। ব্যারাকপুরে নির্বাচনের  পরে মন্দির কমিটির লোকজন দেখতে পায়।এই নিয়ে চাপা উত্তেজনা। এলাকায়।‌


ঘটনার খবর জানতে পেরেই খড়্গহস্ত মমতা জানিয়েছেন এর বিরুদ্ধে  এবার আইনি ব্যাবস্থা নেবেন তিনি।‌

 প্রসঙ্গত গত রবিবারই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানান কেন এই স্লোগানটি নিয়ে বিব্রত তিনি। নিজের ফেসবুক পোস্টে মমতা জানান, "আমি সাধারণ মানুষকে জনাতে চাই, ঘৃণা ছড়িয়ে দিতে চাইছে বিজেপি। বিভ্রান্তি তৈরির জন্যে ভুঁয়ো খবর তৈরি করছে। সত্যকে ধামাচাপা দিতে চাইছে তাঁরা।"