Asianet News BanglaAsianet News Bangla

কলকাতা হাইকোর্টের অন্দরে আইনজীবী বনাম বিচারপতির ঝগড়া যেন তিন শালিকের গল্প!

“আপনি আইন জানেন না।” এই নিয়ে তর্ক শুরু হলেও, শেষমেশ পরিস্থিতি সামাল দিতে ‘‘আপনি যে সৎ মানুষ, তা নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই।’’ বক্তব্য দিয়ে বাদানুবাদ শেষ হল আইনজীবী ও বিচারপতির মধ্যে। কী নিয়ে দুই পদস্থ ব্যক্তির মধ্যে ঝগড়া?

Judge Abhijit Gangopadhyay vs Advocate Arunabha Ghosh argument in Calcutta High Court ANBSS
Author
Kolkata, First Published Aug 18, 2022, 7:17 PM IST

প্রখ্যাত বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে অভিজ্ঞ আইনজীবী অরুণাভ ঘোষের ‘আদায় কাঁচকলায়’ সম্পর্ক উপস্থিত অন্যান্যদের কাছে বেশ রোমাঞ্চকর। এই দুজনের বচসা এর আগে গড়িয়েছিল আদালতের বাইরেও। বৃহস্পতিবার আবার বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে তর্কে জড়ালেন দু’জনেই। বিচারপতি নাকি ‘আইন জানেন না’, মাথা গরমের বশে বলে বসলেন আইনজীবী। অন্য দিকে আইনজীবীকে জেলে ঢুকিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে দিলেন বিচারক। 

বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টে নাগাদ হাইকোর্টে টেট মামলার শুনানি শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিছুক্ষণের মধ্যেই  ভিড় হয়ে থাকা এজলাসে হাসিমুখে এলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সবাই উঠে দাঁড়ানোর পর তিনি বললেন, ‘‘আজ আমি মামলা শুনব না, শরীরটা ভালো নয়। অরুণাভ কোথায়?’’

তখনই গান গেয়ে উঠলেন অন্য আইনজীবী তথা তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, ‘‘তুমি আসবে বলেই কোর্ট রুমে এত ভিড় হয়ে গেল...’’। গান থামতেই অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যার আইনজীবী অশোক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে বিচারপতি জিজ্ঞেস করলেন, ‘‘আপনিও নাকি ভাল গান করেন?’’

এজলাসে তখন প্রবল ভিড়। যা নিয়ে কিছুটা ক্ষুব্ধ হয়ে অরুণাভ ঘোষ বললেন, ‘‘আদালত যেন ছাতুবাবুর বাজার হয়ে গেছে। এত ভিড়!’’ এর পরেই অরুণাভ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের উদ্দেশে আচমকা বলেন, ‘‘আপনি আইন জানেন না। আপনাকে কী করে ডিল করতে হয় জানি। সাংবাদিকরা আপনার চেম্বারে যান। আপনি অনেক কথা বলেন।’’

বিচারপতি তখন আদালতে উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, এই ঘটনার ভিডিয়ো রেকর্ডিং করা যাবে। তিনি বলেন, ‘‘লাইভস্ট্রিমিং করা যাবে না, সকলে ভিডিয়ো করতে পারেন।’’ তার পর অরুণাভকে জবাব দেন, ‘‘আপনি তো সংবাদমাধ্যমে অনেক কিছু বলেছেন, এই নিয়ে রুল জারি করে জেলে পাঠাব। আমার শরীর ভালো না, আসতাম না। কিন্তু না আসলে অনেকে ভাবত আমি ভয় পেয়ে পালিয়ে গেছি। তাই এলাম।’’


বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় এবং অরুণাভর মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় এর আগেও দেখা গিয়েছে। গত জুন মাসেই বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের বিভিন্ন রায় সম্পর্কে সংবাদমাধ্যমের কাছে অরুণাভ ঘোষের মন্তব্য প্রসঙ্গে হাইকোর্টে কটাক্ষ করে বিচারপতি বলেন, ‘‘এক জ্যাঠামশাই আইনজীবী যেখানে সেখানে বলে বেড়াচ্ছেন অভিজিৎবাবু এটা করেননি, অভিজিৎবাবু ওটা করেননি। আমি নাকি আইনের এবিসিডি বুঝি না! আদালতের ওই জ্যাঠামশাই কি আইনের এবিসিডি জানেন? এত দিনে জ্যাঠামশাইয়ের পারফরম্যান্স সবাই জানে। আমি আইনের এ টু জেড না-ই জানতে পারি। কিন্তু, এবিসিডি ভালো করেই জানি।’’

গত ২৯ জুন আইনজীবী সুপ্রতীক রায়ের উদ্দেশে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘‘অরুণাভ ঘোষকে গিয়ে বলুন এই কোর্টে পায়ের ধুলো দিয়ে যেতে। আমার প্রতি কী ক্ষোভ রয়েছে? আমাকে এসে বলুন। আমি মাথা নিচু করে শুনব।’’ অরুণাভ আদালতে এলে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আপনার প্রতি আমার কোনও ক্ষোভ নেই।’’ উত্তরে আইনজীবী অরুণাভ ঘোষ বলেন, ‘‘ক্ষোভ থাকলেই ভালোবাসা হবে। আমি রাতে ঘুমাতে পারি না।’’ বিচারপতি বলেন, ‘‘আপনি বর্ষীয়ান আইনজীবী। যা হয়েছে ভুলে যান। আমি কিছু মন্তব্য করেছি। ভুলে যান। আমি তুলে নিচ্ছি।’’ ঠাণ্ডা হয়ে অরুণাভ বলেন, ‘‘আমি কিছু মনে রাখি না।’’ এরপর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্য, ‘‘আমি আমার মন্তব্য তুলে নিচ্ছি। কল্যাণদার (কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়) কাছে বলেছি। ভালোবাসা থাকুক। ক্ষোভ রাখবেন না। যা হয়েছে ভুলে যান। আমিও ভুলে যাচ্ছি।’’ 

উল্লেখ্য, অন্যান্য বারের মতো আজও এজলাসে বিচারপতিকে শুরুতে রাগ দেখালেও শেষমেশ পরিস্থিতি সামাল দিতে অরুণাভ বলেন, ‘‘আপনি যে সৎ মানুষ, তা নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই।’’

আরও পড়ুন-
টেট পাস না করেই চাকরি? হাইকোর্টে সশরীরে হাজিরা দিতে আসছেন অনুব্রত-কন্যা সুকন্যা

'OBC পোস্ট ছিল না', তারপরেও কেন পরীক্ষা নিল SSC? আদালতের দ্বারস্থ আরও এক চাকরি প্রার্থী
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios