সিবিআইকে অনেক ঘোল খাইয়েছেন রাজীব কুমার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে, দেশের শ্রেষ্ঠ আইপিএস যে সোজা বান্দা না তা আরও একবার টের পেল সিবিআই।

রবিবার সিবিআই রাজীব কুমারকে তলব করে নোটিশ পাঠায়। ল্যান্ডসডাউন রোড, ভবানী ভবন-সহ একাধিক জায়গায় গিয়ে রাজীবকে খুঁজে আসে সিবিআই। বলাই বাহুল্য তাঁকে পাওয়া যায়নি। বরং দূত মারফত চিঠি দিয়ে তিনি জানান, ছুটিতে রয়েছেন। সাতদিন পরে আসতে পারবেন।

এই সাতদিন সময়কেই কাজে লাগাতে এবার আসরে নেমেছে রাজীবের পক্ষের আইনজীবীরা। রাজীবেকে যে নোটিশ দিয়েছে সিবিআই তা যেন খারিজ হয়, এই দাবিতে হাইকোর্টে মামলা নথিভুক্ত করেছেন রাজীবের আইনজীবী। সেই মামলার শুনানুও হবে এদিন‌।

আরও পড়ুনঃ
রক্ষকবচ তুলল আদালত, সু্প্রিম কোর্টে বড় ধাক্কা খেলেন রাজীব কুমার

প্রসঙ্গত গত ১৭ মে রাজীবের ওপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয় সুপ্রিম কোর্ট। দেওয়া হয় সাতদিনের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনও।  রাজীবে এই জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর অনুরোধ খারিজ করে সুপ্রিক কোর্ট। বরং জিজ্ঞাসাবাদের স্বার্থে রাজীবকে গ্রেফতার করা যেতে পারে এই মর্মে মত দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

তারপরে যোগাযোগের কোনও রাস্তাই রাখেননি রাজীব। তাঁর সঙ্গে মুখোমুখি হওয়া তো দূরে থাক, তাঁর ফোনও সংযোগ সীমার বাইরে ছিল। কিন্তু  অলক্ষ্য থেকেই লড়ছেন রাজীব, বোঝা গেল তাঁর আইনজীবীদের তৎপরতায়।

রাজীবের আইনজীবীদের দাবি, সিবিআই নোটিশে বিচ্যুতি রয়েছে বিস্তর, কাজেই এই নোটিশ অবিলম্বে খারিজ করা হোক। বিষয়টি খতিয়ে দেখ আজই রায় দেবে বিচারপতি প্রতীপপ্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের এজলাস। তার পরেই জানা যাবে এবারও  সিবিআই-কে ব্যর্থ মনোরথ হয়ে ফিরে যেতে হবে কি না।