এবার থেকে প্রকাশ্যে পান মশলা, খাওয়ার তামাক ব্যবহার বন্ধ করতে রাজ্য সরকারগুলিকে নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ব্য়াপারে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহন করেছে লালবাজার। 

আরও পড়ুন, রাজ্যেই বানাবে এবার করোনার ওষুধ, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন তৈরী করবে 'বেঙ্গল কেমিক্যাল'

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, খাওয়ার তামাক, পান মশলা, সুপারি মুখের মধ্যে অতিরিক্ত লালার জন্ম দেয়। যে কারণে যেখানে সেখানে থুতু ফেলার একটা প্রবণতা তৈরি হয়। এই ঘটনা ঘটতে থাকলে আরও দ্রুত করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই এগুলি অবিলম্বে বন্ধ করা দরকার। সেই নির্দেশ দেওয়া চিঠি পৌঁছে গিয়েছে সমস্ত রাজ্যে ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যসচিবের কাছে। পাশাপাশি লকডাউনের মধ্যেই আরও কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে লালবাজার। লকডাউন চললেও পাড়ায় পাড়ায় প্রকাশ্যেই চলছে ধূমপান। যা সম্পূর্ণ বেআইনি। প্রকাশ্যে ধূমপানের বিরুদ্ধে কত মামলা রুজু করা হয়েছে, থানাগুলির কাছে লালবাজার তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, পার্ক সার্কাসের বেসরকারি হাসপাতালে প্রৌঢ়ের মৃত্য়ু, করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসতেই অভিযোগ তুলল পরিবার

 দেশের একাধিক রাজ্য, বিহার, ঝাড়খণ্ড, তেলঙ্গানা, উত্তর প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা ও অসম কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশ কার্যকর করেছে। করোনা রুখতেই আগে থেকে রাজ্য সরকারের স্তরে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে, কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের মাদক দমন শাখার কাছেও 'সিগারেটস অ্যান্ড আদার টোব্যাকো প্রোডাক্টস অ্যাক্ট' বা কোটপা আইনে কত মামলা রুজু হয়েছে, সেটা লালবাজারের তরফে জানতে চাওয়া হয়েছে।
 

 

এনআরএস-র আরও ৪৩ জন স্বাস্থ্য কর্মীর রিপোর্ট নেগেটিভ, স্বস্তিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ

করোনার রোগী সন্দেহে বৃদ্ধকে বেধড়ক মার, স্যালাইনের চ্যানেল করা হাতে দড়ি পড়ালো মানিকতলাবাসী

করোনায় আক্রান্ত এবার কলকাতার ২ ফুটপাথবাসী, হোম কোয়ারেন্টাইনে উদ্ধারকারীরা