নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে 8 শিশু সহ বহু মানুষের প্রাণ বাঁচিয়ে নজির গড়লেন ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট কৃষ্ণ দাস। ঘটনা ডায়মন্ড হারবার রোডের ডায়মন্ড ভিউ নার্সিং হোমের। 

শনিবার সকাল ১১.৩৫ নাগাদ হঠাৎ আগুন লাগে ডায়মন্ড হারবার রোডের ডায়মন্ড ভিউ নার্সিং হোমের মেন গেটে। নার্সিং হোমের পাশে রাইস কোচিং সেন্টারের ক্লাসও চলছিল। আগুন ছড়িয়ে পড়ে সেখানেও। খবর পেতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান ডায়মন্ড হারবার ট্রাফিক গার্ডের কর্তব্যরত সার্জেন্ট কৃষ্ণ দাস। 

নার্সিং হোমের ভিতরে তখন আটকে আগের রাতেই জন্ম নেওয়া বেশ কয়েকটি শিশু আর তাদের মায়েরা। এছাড়া, কোচিং সেন্টারেও আটকে ছিল বহু ছাত্রছাত্রী। সঙ্গে সঙ্গে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র দিয়ে বিল্ডিং-এর প্রবেশপথের আগুন কোনও মতে নেভান সার্জেন্ট কৃষ্ণ দাস। তারপরেই ভিতরে ঢুকে পড়েন। নার্সিং হোমের বাইরে নিয়ে আসেন সদ্যোজাত ৮টি শিশু-সহ সবাইকেই। 

এর পরেই স্থানীয় গ্যারাজে যোগাযোগ করে দ্রুত কয়েকটি গাড়ির ব্যবস্থা করেন সার্জেন্ট কৃষ্ণ দাস। একটি ফাঁকা অ্যাম্বুল্যান্স দেখতে পেয়ে সেটিকেও তৎপরতার সঙ্গে থামান তিনি। সেইসব গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্সেই মা ও সদ্যোজাত শিশুদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন সার্জেন্ট।

 

 

অগ্নিকাণ্ডে কোনও হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। শিশু ও মায়েদের কৃষ্ণ দাস উদ্ধার করার পরে কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে পৌঁছয় দমকল বাহিনী এবং আগপন নেভায়। 

এই পুরো ঘটনাটি কলকাতা পুলিশ আজ তাদের ফেসবুকে পোস্ট করে। অত্যন্ত তৎপরতার সঙ্গে এত গুলো মানুষের প্রাণ বাঁচানোর জন্য তারা কৃষ্ণ দাসকে কুর্ণিশ জানিয়েছে।