কদিন আগেই রাজ্য়ে ফ্রিতে করোনা চিকিৎসা নিয়ে নিজের গর্বের কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য়ে করোনা আবহে একের পর এক ঘটনা দেখিয়ে দিয়েছে, সরকারি হাসপাতালে ফ্রিতে চিকিৎসা হলেও বহু অভিযোগ রয়েছে রোগীদের। সোমবার সেই অভিযোগনামায় নতুন সংযোজন মৌমিতা ঘোষ। তাঁর অভিযোগ, চিকিৎসক, নার্সদের সাহায্য় পাচ্ছেন না তিনি। শেষপর্ষন্ত হাসপাতালের আশা ছেড়ে ফেসবুকে তাই বাঁচার কাতর আর্জি জানিয়েছেন ওই যুবতী। যদিও মৌমিতা ঘোষের এই ভিডিয়ো যাচাই করেনি এশিয়ানেট নিউজ বাংলা। তিনি হাওড়ার টি এল জয়সওয়াল হাসপাতালে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। 

সম্প্রতি কলকাতায় আইসিএমআর-এর উন্নতমানের ল্যাবের ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সেই ভাার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ছিলেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। সেখানেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে রাজ্য়ে ফ্রিতে করোনা চিকিৎসার কথা বিশ্বকে জানাতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। যদিও এদিন মৌমিতা ঘোষের ফেসবুক লাইভের পর স্বাভাবিকভাবেই সেই দাবি নিয়ে কিছু প্রশ্ন উঠবে।

লাইভে ওই রোগী বলেছেন, তিনি যে চিকিৎসালয়ে রয়েছেন সেখানে পচা ডিম খাওয়ানো হচ্ছে। ৬দিন ধরে এইসব বিষয়ে মুখ খোলেননি তিনি। সকাল থেকেই তার বুকে যন্ত্রণা শুরু হয়েছে। বার বার বলা সত্ত্বেও কোনও চিকিৎসক বা নার্স দেখতে আসেননি। এমনকী অক্সিজেন চেয়েও তা পাননি। তিনি যেখানে রয়েছেন,  সেখানে সবাইকে এভাবে  এনে মরতে দেওয়া হচ্ছে।

ইতিমধ্য়েই ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে যুবতীর লাইভ ভিডিয়ো। তার কথা কোনওক্রমে সংবাদমাধ্য়মের কাছে পৌঁছনোর কাতর আর্জি জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি রাজ্য়ের চিকিৎসার এই পরিস্থিতি সোশ্য়াল মিডিয়ায় শেয়ার করতে বলেছেন।

তবে ওই রোগী একা নন, সম্প্রতি রাজ্য়ে ফ্রিতে করোনা চিকিৎসা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। রুবি জেনারেল হাসপাতালের একটি ১০ লক্ষ টাকার বিল দেখিয়ে রাজ্য়ে মুখ্য়মন্ত্রীর ফ্রিতে করোনা চিকিৎসার বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। টুইটারে তিনি  লিখেছেন, করোনা রোগীর ১০ লক্ষের বিল! রাজ্যের ‘Free Treatment’-এর নমুনা। ছবিতে দেখা গিয়েছে, ওই বেসরকারি হাসপাতাল ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর ১৪ দিনের চিকিৎসায় বিল করেছে ১০,৩৯,০০০ টাকা!

Social Media-তে মাননীয়া দিদির 'Totally Free Teatment'-এর একটা নমুনা ঘুরছে !! শেয়ার করলাম আপনাদের সাথে @BJP4Bengal @BJYMinWB @BJPMM4Bengal @swapan55 pic.twitter.com/8gvIR9f9PX

— Babul Supriyo (@SuPriyoBabul) August 9, 2020