আনলক ৪ শুরু হতেই সেপ্টেম্বরে চালু হতে পারে লোকাল ট্রেন। ইতিমধ্য়েই রাজ্য়ে লোকাল ট্রেন চালুর বিষয়ে অনুমতি দিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। সামাজিক দূরত্ব মেনে রেলের চাকা ঘুরলে তার আপত্তি নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, সেই পথেই আপাতত চলতে পারে ভারতীয় রেল। শুক্রবারই বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসবেন পূর্ব রেলের কর্তারা।

সকাল দশটা নাগাদ শুরু হতে পারে এই বৈঠক। এমনিতেই লকডাউনে বিশাল ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছে ভারতীয় রেল। ট্রেন না চলায় কোষাগারের অবস্থা প্রায় তথৈবচ। সূত্রের খবর, শিয়ালদহের বিভিন্ন শাাখায় সাড়ে ৭০০-র বেশি লোকাল ট্রেন চলে। হাওড়া শাখায় এই  সংখ্যাটা ২০০-র বেশি। আপাতত সব ট্রেন না চালালেও পরীক্ষামূলকভাবে ২৫ শতাংশ লোকাল ট্রেন চালাতে পারে পূর্ব রেল। অন্তত তেমনই আভাস পাওয়া যাচ্ছে। 

স্বাস্থ্য়বিধি মেনে কীভাবে ট্রেন চালানো হবে  তা নিয়ে ইতিমধ্য়েই বেশকিছু প্রস্তাব পাওয়া গিয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, শিয়ালদহে লোকাল ট্রেন  পরিষেবা শুরু হলে স্টেশেন ঢুকতেই স্যানিটাইজার টানেলের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও নির্দিষ্ট সংখ্য়ক লোককেই এক কামরায় উঠতে দেবে আরপিএফ। টিকিটের বদলে ই-টিকিট কাটার ওপর জোর দেবে রেল কর্তৃপক্ষ।

গতকালই অগস্টের মতো সেপ্টেম্বরেও রাজ্য়ে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে বলে জানান মমতা। নবান্নে মুখ্য়মন্ত্রী জানিয়েছেন, আপাতত ৭,১১, ১২ সেপ্টেম্বর রাজ্য়ে পূর্ণ লকডাউন  থাকবে। কদিন ধরেই রাজ্য়ে পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে লোকাল ট্রেন মেট্রোরেল চালানোর জল্পনা সামনে আসছিল। এদিন যা নিয়ে মুখ্য়মন্ত্রী বলেন, ১ সেপ্টেম্বর থেকে রাজ্য়ে ট্রেন বা মেট্রো চালু হলে রাজ্য় সরকারের কোনও আপত্তি  নেই। তবে তা যেন সামাজিক দূরত্ব মেনে হয় তা নজর রাখতে হবে। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ও রেল কর্তৃপক্ষ রাজ্য়ের সঙ্গে একবার কথা বলে নিলে ভালো হয়।