সবুজ-মেরুনের পর এবার লাল-হলুদ। আইএসএল-এ খেলবে ইস্টবেঙ্গল। নবান্নে দাঁড়িয়ে এই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। ক্লাবের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়েই এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

কলকাতা ফুটবলের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী বলছে, স্পনসর নিয়ে চিন্তায় ছিল  ইস্টবেঙ্গল। সবশেষে এখন বিনিয়োগকারী পেয়ে গেছে দল। লাল-হলুদ শিবিরে ইনভেস্টর হিসাবে যোগ  দিয়েছে শ্রী সিমেন্ট কোম্পানি। চুক্তি অনুযায়ী, ক্লাবের ৮৫ শতাংশ শেয়ার থাকবে এই সিমেন্ট কোম্পানির হাতে।  বাকি ১৫ শতাংশ থাকবে ইস্টবেঙ্গলের।

নবান্নে দাড়িয়ে এনিয়ে মুখ খুলেছেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী জানান, বাংলা ছাড়া ফুটবল সম্পূর্ণ হবে না। আশা করব, শ্রী সিমেন্ট রাজ্য়ে অনেক শিল্প গড়বে। করোনা সময়ে সামনে এগিয়ে এসে তারা যেভাবে ইস্ট বেঙ্গলের পাশে দাঁড়িয়েছে সেটা অনেক বড় কথা। 

এর আগেই আইএসএল-এ অভিষেক হয়েছে মোহন বাগানের। তাই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ইস্টবেঙ্গলও আইএসএল-এ যাওয়ার কম চেষ্টা করছিল না। তবে ইনভেস্টরের অভাবে বার বার বাধা পাচ্ছিল চেষ্টা। মঙ্গলবারই খবর রটে গিয়েছিল,শোনা গিয়েছিল অবশেষে শ্রী  সিমেন্টের সঙ্গে গাঁটছড়া বাধছে ইস্টবেঙ্গল। এদিন মুখ্য়মন্ত্রীর গলাতেই উড়ে এল সেই সুখবর-আইএসএলে খেলবে ইস্টবেঙ্গল।

তবে কী কারণে একটি ক্লাবের আইএসএল-এ খেলার ঘোষণা নবান্ন থেকে হল তা বুঝে  উঠতে পারছেন না অনেকেই। মুখ্য়মন্ত্রীর বদান্যতায় এই কাজ হয়েছে কিনা তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন। মুখ্য়মন্ত্রীই কি সিমেন্ট কোম্পানিকে ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর হতে বলেছেন তা নিয়ে কোনও খোলসা হয়নি।