নরেন্দ্র মোদীর করোনা নিয়ে ভারচুয়াল বৈঠকে নিজের ছাপ রাখলেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। সোমবার  দিল্লি থেকে আইসিএমআরের অত্য়াধুনিক ল্যাবের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র এবং উত্তর প্রদেশের এই ল্যাব উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। এদিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে মুখ্য়মন্ত্রী বলেন,প্রধানমন্ত্রী আপনি বিশ্বকে বলুন, আপানার দেশের একটি রাজ্যে বিনা পয়সায় করোনার চিকিৎসা হচ্ছে।

মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন আরও তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ছাড়াও মোদীর ভারচুয়াল বৈঠলে সামিল হয়েছিলেন  উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। কলকাতা থেকে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের দাবি অনুযায়ী আইসিএমআরের এই ল্যাবগুলোতে দিনে অন্তত ১০ হাজার করে টেস্ট করা যাবে। 

তবে শুধু করোনা নয়, এইচআইভি, ডেঙ্গির মতো সংক্রমিত রোগেরও পরীক্ষা করা যাবে আইসিএমআর-এর এই অত্যাধুনিক ল্যাবরোটরিগুলিতে। বিজেপির সঙ্গে রাজনৈতিক সংঘাত থাকলেও এদিন প্রধানমন্ত্রীকে কলকাতায় ল্যাব তৈরির জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি কোভিড চিকিৎসায় রাজ্য় কীভাবে লড়াই করছে তারও একাধিক বর্ণনা শোনা যায় মুখ্য়মন্ত্রীর মুখে। 

মমতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনি বিশ্বকে বলুন, আপানার দেশের একটি রাজ্যে বিনা পয়সায় করোনার চিকিৎসা হচ্ছে।  রাজ্যের করোনা যুদ্ধে ৮১টি হাসপাতাল লড়াই করছে। একানে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা চলছে। তবে একা সরকারি হাসপাতালই নয়, বেসরকারি হাসপাতালেও করোনার চিকিৎসা  হচ্ছে। রাজ্যে কোবিড পরিস্থিতি সামাল দিতে ১০৬টি সেফ হাউস তৈরি করা হয়েছে। তাছাড়াও শুরু হয়েছে টেলি মেডিসিন সার্ভিস। দূরের রোগীদের জন্য দিনরাত কলসেন্টারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও  রাজ্যের করোনা মৃত্যুর ৮০ শতাংশই কোমর্বিডিটিতে হচ্ছে বলে দাবি করেন মমতা।