ফের ব্যাঙ্ক জালিয়াতি শিকার শহরের বাসিন্দা। বেহালা পর্ণশ্রীর বাসিন্দা স্বপন ঘোষ এবার ব্যাঙ্ক জালিয়াতির শিকার হলেন। ২ টাকার ফোন পে করতে গিয়ে তাঁকে প্রায় কুড়ি হাজার টাকার জালিয়াতির কবলে পড়লে তিনি।  ইতিমধ্যেই বেহালা পর্ণশ্রীর ওই বাসিন্দা ঘটনার অভিযোগ জানিয়েছেন পর্ণশ্রী থানায়।

আরও পড়ুন, উপাচার্যের ইস্তফার জের, কার্যত অচল হওয়ার আশঙ্কায় রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়

সূত্রের খবর, ফোন পের মাধ্যমে মাঝেমধ্যে বাড়ির ইলেকট্রিক বিল জমা দেতেন বেহালা পর্ণশ্রীর বাসিন্দা স্বপন ঘোষ । গতকাল শুক্রবার,তার ফোনে একটি মেসেজ আসে। সেখানে বলা হয় কেওয়াইসি ফর্ম ফিলাপ করতে হবে ,না করলে ফোন পে ব্যবহার করতে পারবে না।  স্বপনবাবু  ফোনে জিজ্ঞাসা করে, 'তাহলে  কি করতে হবে'। এরপরই উল্টোদিক থেকে থাকা ব্যক্তি হিন্দিতে বলে 'আপনাকে আমাদের ফোন পে কাস্টোমার কেয়ার এ ফোন করুন।' কাস্টমার কেয়ার-এ ফোনে করার পরে উল্টোদিকের ব্যক্তি টিম্ ভিওয়ার ডাউনলোড করার ফোনে ওই বৃদ্ধকে দিয়ে। এরপর খানিকক্ষণ ফোন হোল্ডে রেখে স্বপনবাবুর সঙ্গে কথোপকথন করার পর তাঁকে একটি লিঙ্ক পাঠানো হয়। এবং বলা হয় এই লিঙ্ক ফোন পের মাধ্যমে  দু'টাকা পাঠাতে। এরপর যখন তিনি ২ টাকা পাঠান তখন ওই ব্যক্তির ব্যাংক থেকে  একবার ৯০০০ আর একবার ৯৯৯৯  টাকা ব্যাক্তির একাউন্ট থেকে তুলে নেওয়া হয়। এবং তারপরে ফোন কেটে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন স্বপন ঘোষ।

আরও পড়ুন, ই এম বাইপাস ছেড়ে বাড়িতে ঢুকে পড়ল লরি, আশঙ্কাজনক ২

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বেহালা পর্ণশ্রীর বাসিন্দা স্বপন ঘোষ ঘটনার অভিযোগ জানিয়েছেন পর্ণশ্রী থানায়। এই ঘটনায় ইতিমধ্য়েই তদন্তে নেমেছে পুলিশ। উল্লেখ্য়,এর আগেও একাধিক বার শহরে ব্য়াঙ্ক জালিয়াতি ঘটনা ঘটে। মুদিখানার দোকান সাজিয়ে  ডিপার্টমেন্টাল স্টোর তৈরির নামে ব্যাঙ্ক জালিয়াতির পর্দা ফাঁস হয়েছিল খাস কলকাতার বুকেই। যেখানে ঋণ নেওয়ার নামে ভুয়ো ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট জমা দিয়ে ৪০ লক্ষ টাকার ব্যাঙ্ক জালিয়াতি করা হয়েছিল। তবে বারবার একই ঘটনা ঘটনায় কার্যতই নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ প্রশাসন।

আরও পড়ুন, করোনা ভাইরাস আতঙ্ক, মাস্কের কালোবাজারি রুখতে কড়া পদক্ষেপ পুলিশের