সুরাপ্রেমীদের জন্য় সুখবর নিয়ে এল আনলক ফোর। রাজ্য় সরকারের নির্দেশে এবার শর্তসাপেক্ষে খুলতে চলেছে বার। কনটেইনমেন্ট জোনের বাইরে এই বার খোলার অনুমতি  দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্য়েই নবান্ন থেকে বার খোলার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। 

সম্প্রতি আনলক ফেজে নতুন নতুন বিষয়ের ওপর ছাড়পত্র দেওয়া শুরু করেছিল সরকার। কদিন আগেই রাজ্য়ের বারগুলি খোলার বিষয়ে রাজ্য় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন রেস্তোরাঁ ও বার মালিকদের সংগঠন। সেই অনুসারে পয়লা সেপ্টেম্বর থেকেই মিলল বার চালানোর অনুমতি।  তবে অনুমতি মিললেও বার চালাতে বেশকিছু শর্ত আরোপ করেছে রাজ্য় সরকার। বার চালু হলেও ডান্স ফ্লোর বন্ধ রাখতেই বলা হয়েছে। এমনকী বার কখন বন্ধ করা হবে, তা স্থানীয় প্রশাাসনের অনুমতি নিয়েই করতে বলা হয়েছে।

সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় সেদিকে নজর দিতে বলা হয়েছে বার মালিকদের। নিয়মিত স্যানিটাইজ করতে বলা হয়েছে বারগুলিকে। এমনকী আসনের ৫০ শতাংশ সুরাপ্রেমীদেরই বারে ঢোকার অনুমতি দিতে হবে। খাবার পরিবেশন করতে হবে করোনা মোকাবিলায় সরকারের বিধি মেনে।

এ ছাড়াও শোনা যাচ্ছে, অবশেষে উঠে যেতে পারে 'কোভিড কর'। লকডাউনের পর যা মদের ওপর লাগু করেছিল সরকার। ৩০ শতাংশ সেই বাড়তি মদের দাম থেকে রেহাই পেতে চলেছেন সুরাপ্রেমীরা। নবান্ন সূত্রে খবর, আগামী মাস থেকেই অতিরিক্ত দাম ছাড়া মদ পাবেন ক্রেতারা।

রাজ্য়ের আয়ের খতিয়ান বলছে, একটা বড় অংশ আয় আসে মদ বিক্রি থেকে। গত ২৫ মার্চ লকডাউনের সময় থেকেই  বন্ধ হয়ে যায় মদের দোকান। ফলে রাতারাতি আয় কমে যায় রাজ্য় সরকারের। তৃতীয়বার  লকডাউনের পর থেকেই কিছু বিষয়ে ছাড় দিতে শুরু করে সরকার।  সেই সময় নিয়ম মেনে মদের দোকান খোলার অনুমতি দেয় সরকার। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতিতে রাজস্ব আদায়ে মদের ওপর ৩০ শতাংশ কোভিড কর চাপায় রাজ্য় সরকার। ফলে মদের দোকান খুললেও সুরাপ্রেমীদের মাথায় হাত পরে। অবশেষে সেই বাড়তি ৩০ শতাংশের বোঝা কমাতে চলেছে মমতার সরকার।