খাস কলকাতাতেই প্রকাশ্যে অপহরণের অভিযোগ। এ দিন বিকেলে বালিগঞ্জের সানি পার্ক এলাকায় এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে অপহরণের অভিযোগ উঠল। যে গাড়িতে করে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে, সেই গাড়ির নম্বরের সূত্র ধরে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এ দিন বিকেলে চার যুবক বালিগঞ্জের সানি পার্ক এলাকায় একটি দোকানে দাঁড়িয়ে চা খাচ্ছিলেন। যে ব্যক্তিকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ, কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি সেখানে আসেন। অপহরণকারীদের সঙ্গে ওই ব্যক্তিও চা খান বলে জানা গিয়েছে। অভিযোগ, এর পরেই ওই ব্যক্তির সঙ্গে বচসা বাধে ওই চার যুবকের। অভিযোগ এর পরেই জোর করে ওই ব্যক্তিকে একটি সাদা রংয়ে স্করপিও গাড়িতে তুলে চম্পট দেয় অপহরণকারী চার যুবক। 

ওই ব্যক্তিকে মারধর করে গাড়িতে তোলা হয়েছে বলে খবর। বাঁচার জন্য ওই ব্যক্তি সাহায্য চেয়ে চিৎকার করতে থাকেন। তাঁকে সাহায্যের জন্য কয়েকজন এগিয়েও আসেন। অভিযোগ, অপহরণকারীরা তাঁদের ধাক্কা মেরে সরিয়ে দেয়। 

এর মধ্যেই এক পথচারী ওই স্করপিও গাড়ির নম্বরের ছবি তুলে নেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। তাদেরকে ওই গাড়ির নম্বর দেওয়া হয়। সেই নম্বর দেখেই তদন্তে নেমেছে বালিগঞ্জ থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় কোনও সিসিটিভি নেই। ফলে গাড়িটি কোন রাস্তা ধরে গিয়েছে, আশপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। পাশাপাশি গাড়ির নম্বর দেখে খোঁজ চলছে গাড়ির মালিকেরও। 

প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান থেকে তদন্তকারীদের ধারণা, অপহরণকারীরা অপহৃত ব্যক্তির পূর্ব পরিচিত। ওই ব্যক্তিকে সত্যি অপহরণ করা হয়েছে, নাকি অন্য কোনও ঝামেলার কারণেই জোর করে ওই ব্যক্তিকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।