ফের বিতর্কে কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। এবার রোগীর জন্য বরাদ্দ খাবার চুরি করে রোগীর আত্মীয়কেই বিক্রির অভিযোগ উঠল হাসপাতাল কর্মীদের বিরুদ্ধে।  ঘটনাটি মোবাইল বন্দি করেছেন রোগীর আত্মীয়। ঘটনার পরই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন রোগীর আত্মীয়রা।   

রোগীর আত্মীয়দের অভিযোগ, রোগীদের জন্য বরাদ্দ খাবারের থেকে কম খাবার দেওয়া হচ্ছে রোগীদের। সেই জমিয়ে রাখা খাবরই বিক্রি করা হচ্ছে রোগীর আত্মীয়দের মধ্যে। শুধু ভাত নয়, রোগীর মিলের সব্জি,আমিষ খাবার সবই বেহাত হচ্ছে আত্মীয় দের কাছে। টাকার বিনিময়ে এই কাজ করছে হাসপাতালেরই অসাধু চক্র। খোদ হাসপাতালেরই রান্নাঘরে সেই খাবার রোগীর আত্মীয়দের বিক্রি করা হচ্ছে কম দামে। 

ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে মেডিকেল কলেজের সেই কীর্তি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রোগীর আত্মীয়দের  অভিযোগ, বেশ কয়েকদিন ধরেই দেখা যাচ্ছিল, রোগীকে দেওয়া খাবারের পরিমাণ কম। রোগীর এক আত্মীয় জানান, প্রায়ই দেখতাম কম দামে  ওয়ার্ডের বাইরেই রোগীর আত্মীয়দের জন্য প্যাকেটে কম দামে খাবার দেওয়া হচ্ছে। মাত্র ২০ টাকায় ভাত, ডাল, তরকারি, ডিম বা কখনও ৫০ টাকায় সারাদিনের খাবার দেওয়ার কথা বলছিলেন এক ব্যক্তি।  পরে এক রোগীর আত্মীয় বিষয়টি মোবাইলে রেকর্ড করে রাখেন। ওই ভিডিও প্রকাশ্য়ে আসতেই হইচই পড়ে যায়। 

অভিযোগ ওঠে বিনামূল্যে রোগীর খাবার কমিয়ে সেই খাবার রোগীর আত্মীয়দের মদ্যে বিক্রি করা হচ্ছে। এই নিয়ে কিচেন সুপারকে প্রশ্ন কারা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি জানেন না। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ব্য়বস্থা নেবে।