Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Howrah Polls- প্রসূনের পথের ‘কাঁটা’ রাজীব, পুরভোটের আগে ‘ঘর ওয়াপসিতেও’ নেই স্বস্তি

রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের তৃণমূলে ফেরা নিয়ে তীব্র কটাক্ষ প্রসূন বন্দোপাধ্যায়ের। দিলেন হুশিয়ারি

Prasoon Bandopadhyay's sharp sarcasm on Rajiv Bandopadhyay's return to tmc
Author
Howrah, First Published Nov 14, 2021, 8:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ফের পুরনো দলে ফিরেও যেন স্বস্তি নেই রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের। এবার সরাসরি হুঁশিয়ারি পেলেন দলেরই নেতার থেকে। পুরভোটের আগে যা নিয়ে ফের সরগরম রাজ্যের রাজ্য-রাজনীতি। “ভোটের সময় যারা দল ছেড়ে চলে গিয়েছিল তাদেরকে হাওড়াতে ঢুকতে দেব না। সে যত বড় মাতব্বর হোক না কেন হাওড়াতে জায়গা হবে না”। সদ্য তৃণমূল-কংগ্রেসে যোগদানকারী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম না করে এই ভাবেই চাঁচাছোলা ভাষাতে হুঁশিয়ারি দিতে দেখা গেল হাওড়া সদররে লোকসভার সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।

এখানেই না থেমে রাজীবের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে এই প্রাক্তন ফুটবলার বলেন, “সেদিন তোমরা ভাবলে দিদি হেরে যাবে। দিদি যতদিন জীবিত থাকবেন ততদিনই ক্ষমতায় থাকবেন। কেউ তাকে হারাতে পারবে না। তুমি দিদির কষ্টের দিনে প্লেনে উড়ে গেলে। কী সুন্দর খাওয়াদাওয়া পেলে। আবার ভোটে হেরে দিদির ছবি বগলদাবা করে ঘুরে বেড়াছে।  বলেন সে এখন সর্বত্র বলে বেড়াচ্ছে তাকে ভুল বোঝানো হয়েছিল।” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই কলকাতা ও হাওড়ায় বেজে গিয়েছে পুরভোটের দামামা দামামা। রবিবারই হাওড়ায় ভোট নিয়ে একদফা সংঘর্ষ হয়ে যায় তৃণমূল বিজেপির মধ্যে। বিজেপি কর্মীকে মারধরে অভিযোগের তীর উঠেছে তৃণমূলের দিকেয যা নিয়ে এখনও পর্যন্ত উত্তেজনা রয়েছে গোটা জেলাতেই। তারই মধ্যে প্রসূনের এই মন্তব্যে শাসকদলের অস্বস্তি যে বাড়বে তা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন - হাওড়ায় বিজেপি কর্মীকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

তবে অনেকেই বলছেন এদিন যে প্রসূনের তোপে কার্যত ঘরে-বাইরে বিস্তর চাপে পড়েছেন রাজীবন বন্দোপাধ্যায়। তৃণমূলের এই বরিষ্ঠ নেতা তথা ক্রীড়াবিদ এদিন রাজীবকে বুড়ো দামড়া বলেও কটাক্ষ করেন। তাঁর সাফ দাবি তিনি কোনোভাবেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূলে যোগ দেওয়া মানতে পারবেন না। তাই দল যদি তাকে দল ছেড়ে চলে যেতে বলেন তাহলে দিদির পায়ের তলায় বসে থাকবেন কিন্তু রাজীবকে কোনোভাবেই মানবেন না। এদিন কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে এই সাংসদের দাবি, তিনি যতদিন বেঁচে আছেন ততদিন হাওড়ায় ‘কাউকে’ আসতে দেওয়া হবে না। যদিও এই ঘটনায় তৃণমূলের শীর্ষ স্তরের কোনও নেতার প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios