ক্রমাগত পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির ভিত্তিতে রাজ্যে বেসরকারি বাসের ভাড়া বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন বাস মালিকরা। এই ইস্যুতে বিষয়ে চাপ সৃষ্টি করার জন্য় সরকারের ওপরে চাপ সৃষ্টি করতে আগামী  মাসে আন্দোলনে নামতে চলেছেন বাস মালিকপক্ষ। বর্তমানে সাধারণ নন-এসি বেসরকারি বাসের ন্যূনতম ভাড়া ৭ টাকা। একলাফে ২ টাকা বাড়িয়ে সেটা, ৯ টাকা করার দাবি উঠেছে। বাস মালিকদের এই দাবিকে  সমর্থন জানিয়ে পাশে রয়েছে লাক্সারি ট্যাক্সি সংগঠন। সরকার তাদের দাবি মঞ্জুর না করলে  ভবিষ্যতে আরও বড় আকারের  আন্দোলনে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাস মালিকরা।

 

 

আরও পড়ুন, কুয়াশাচ্ছন্ন কলকাতায় শুরু বৃষ্টি, ২৪ ঘণ্টা পরেই জাঁকিয়ে শীত রাজ্যে


 ২০১৮ সালের জুন মাসে,  শেষবার বাসের ভাড়া বেড়েছিল  রাজ্যে। চার বছর পর, ২০১৮ সালে বাসের ভাড়া ১ টাকা করে বৃদ্ধি করা হয়েছিল। যার জন্য় এখন বাসে উঠলেই ন্যূনতম ভাড়া দিতে হচ্ছে ৭ টাকা। আর মিনিবাসের ক্ষেত্রে তা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৮ টাকা। এ বার তাই রাজ্যের বাস মালিকদের সংগঠন জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের তরফে  সাধারণ বাসের ক্ষেত্রে ন্যূনতম ভাড়া অন্তত ২ টাকা বাড়িয়ে ৯ টাকা করার দাবি জানানো হয়েছে। তাদের যুক্তি, শেষ বার বাসের ভাড়াবৃদ্ধির পরে পেট্রোপণ্য অর্থাৎ তেলের দাম বিপুল পরিমানে বেড়ে গিয়েছে। তার সঙ্গে বেড়েছে আনুসাঙ্গিক খরচ। তাই তাদের দাবি, বর্তমান ভাড়ায় বাস চালাতে গিয়ে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে বাস মালিকদের । তাই এই ভাড়া বৃদ্ধির দাবি সরকারের কাছে।  জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে, আগামী ৫ ফ্রেবুয়ারি থেকে টানা তিন দিন ধরে ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেলে অবস্থানে বসতে চলেছে সিন্ডিকেট।

আরও পড়ুন, হাইকোর্টকে বিভ্রান্ত করার দায়, ১১ হাজার টাকা জরিমানা সব্য়সাচীর


অপরদিকে, ভাড়া বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন রাজ্যের লাক্সারী ট্যাক্সি মালিকরাও। তাঁরা দাবি,  বহু দিন ধরে লাক্সারি ট্যাক্সির ভাড়া বাড়েনি। এদিকে জ্বালানি-সহ আনুসাঙ্গিক সমস্ত খরচ ক্রমাগত  বেড়েই চলেছে। যার ফলে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছে এই শিল্প। যে কারণে ন্যূনতম ভাড়া ১,৫০০ টাকা করার দাবি লাক্সারি ট্যাক্সি-মালিকদের। এর ফলে  আগামিদিনে বাস ও ট্যাক্সির উভয় সংকটে  সাধারণ যাত্রীরা  পড়তে হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে।