কোনও গুরুগম্ভীর সিরিয়াস বিষয় নয় বরং ৩৫ তম বর্ষে পদার্পন করে একটি অতি জনপ্রিয় এবং উপভোগ্য বিষয় কেই থিম হিসাবে বেছে নিয়েছেন সল্টলেক এফ-ডি ব্লকের পুজো উদ্যোক্তারা। জোনাথন সুইফটের "গালিভার ট্রাভেলস" রচনাটির ওপর ভিত্তি করেই এবার সেজে উঠছে সল্টলেকের অন্যতম বৃহৎ এই পুজো। মুলত ছোটদের কথা ভেবে মণ্ডপটি নির্মাণ করা হলেও পুজো উদ্যোক্তাদের দৃঢ় বিশ্বাস যে ছোট বাচ্চাদের অভিভাবকদেরও তাদের পুজো মণ্ডপ দেখতে খুব ভালো লাগবে।

আরও দেখুন- কলকাতায় থেকেই কাশী দর্শন করাবে এবার জগত মুখার্জ্জী পার্ক দুর্গোৎসব কমিটি

    এফ-ডি ব্লক সার্বজনীন পুজো কমিটির সম্পাদক সৌমিত্র মুখার্জি জানিয়েছেন সারাবছর জীবন যুদ্ধে ব্যস্ত থাকার পর, পুজোর মরসুমে বাঙালি একটু হাফ ছেড়ে বাঁচার রসদ পায়। তাই সাধারণ মানুষ সেই সময় কোন গুরুগম্ভীর বিষয় এর চেয়ে হালকা কোনও বিষয়ের ওপর থিম কে বেশি আপন করে নিয়ে থাকেন। সেই ভাবনা থেকেই তারা এইবারের থিমের বিষয়টি নির্বাচন করেছেন। এই বছর তাদের পুজোর বাজেট প্রায় ৬০  লক্ষ টাকা। শুধু এই বছর বলেই না আগের বছর তাদের পুজোর থিমের বিষয়টিও ছিল যথেস্ট হালকা এবং মজাদার। সেই বছর তাদের পুজো সল্টলেকের পুজোগুলির মধ্যে সর্বাধিক ভিড়ের নজির গড়েছিল এবং পুজো কমিটির দৃঢ় বিশ্বাস যে এই বছর তাদের থিম দর্শকদের এতটাই আকৃষ্ট করবে যে তারা গতবছরের রেকর্ড ভেঙে দেবে। 

আরও দেখুন- মায়েদের দুঃখের কাহিনি নিয়েই এবার মা আসছেন সল্টলেক এ ই পার্ট ১ ব্লক কমিটিতে

     রেকর্ড ভাঙার অঙ্গীকার করা এফ-ডি ব্লকের পুজো কতটা প্রত্যাশা পুরণ করতে পারবে তা সময় বলবে। কিন্তু বাড়িতে কচিকাঁচা থাকলে তাদের মুখ চেয়ে দেখে যেতেই পারেন লবণ হ্রদের অন্যতম বৃহৎ এই পুজোকে।