সর্বত্র এখন শুরু হয়ে গিয়েছে পুজোর প্রস্তুতি। পাড়ার অলিতে গলিতে বাঁশের শব্দ জানান দিচ্ছে পুজো আসছে। কাশ ফুল, শিউলির গন্ধ আর শরতের আকাশ যেন মায়ের আগমণ বার্তাই নিয়ে আসছে। এখন কলকাতার অধিকাংশ জায়গাতেই থিম দেখাতে পাওয়া যায়। নজরকাড়া সব থিম দৃষ্টি আর্কষণ করে সকলেরই। তাই এখন সকলেই থিমের দিকেই ঝুঁকছে। সল্টলেকের এ ই পার্ট ১ ব্লক কমিটিরও থিমের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। এবার সেখারকার থিমের মধ্যে দিয়ে উঠে আসবে সল্টলেকের গল্প। 

কলকাতার সল্টলেক যা লবণ হ্রদ অঞ্চল নামেও পরিচিত সেই সল্টলেকের গল্পই এবার উঠে আসবে সল্টলেকের এ ই পার্ট ১ ব্লক কমিটির থিমের মধ্যে দিয়ে। এবার তাদের থিম সল্টলেকের ইতিকথা। কলকাতার মধ্যে হলেও সল্টলেকের শান্ত পরিবেশ মনকে ভালো করে দেয়। সেখানে গাড়ির শব্দ কম শুধু তাই নয় সেখানে কোলাহলও অনেকটাই কম যা মনে শান্তি এনে দেয়। এই মন ভালো করা জায়গার মধ্যে রয়েছে এক মন খারাপ করা কাহিনি। আর সেই কাহিনি নিয়েই এবার আসতে চলেছে সল্টলেকের এ ই পার্ট এল ব্লক কমিটি।  

সল্টলেকের এমন অনেক মানুষ আছে যাদের জীবন একাকিত্বে ভরা। তাঁরা তাদের বাড়িতে থাকেন কিন্তু কিছু পরিচারিকার সঙ্গে। পরিবারের কোনও সদস্যরাই থাকেন না তাঁদের সঙ্গে। তাদের আপনজনেরা সবাই আছেন তবে তাঁরা থাকেন বিদেশে। তাদের দেখার বলতে তেমন কেউ নেই বললেই চলে। সেই শেষ বয়সে এসে যারা এই ভাবে একা দিন কাটাচ্ছেন সেই সব মানুষদের দুঃখের কাহিনিকেই এবার পুজোতে তারা তুলে ধরতে চলেছেন। মা আসার আনন্দ থাকলেও চারপাশে থাকা মায়েদের দুঃখের কাহিনি নিয়েই এবার তাদের থিম। মায়েদের সেই দুঃখের কাহিনি আরও ভালো করে উপলব্ধি করতে হলে আপনাদের যেতে হবে এ ই পার্ট ১ ব্লক কমিটির পুজোতে। চার নম্বর ট্যাঙ্কের কাছে এ ই- ২৩৪এ, সেক্টর- ১ গেলেই দেখতে পাবেন এই থিম।