বাইরের দেশের মতোই দেশেও স্কুল খুলতেই সংক্রমিত হয়েছেন অনেকেই। জ্বলজ্য়ান্ত প্রমাণ বিট্রেনের পরেই ভারতের কর্ণাটক। দেখা গিয়েছে, স্কুল খুলতেই হুড়হুড়িয়ে ছড়িয়েছে সংক্রমণ।  তাই এই ঘটনা থেকেই সতর্ক হয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চাইছে কেন্দ্র। নীতি আয়োগ চাইছে, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের টিকাকরণ সেরে স্কুল খোলার পথে। তবে বাংলার স্কুল খোলা নিয়ে কী বলছেন শিক্ষামন্ত্রী , জেনে নেওয়া যাক। 


বাংলায় কোভিডের সংক্রমণের হার অনেকটাই কমেছে। বেড়েছে সুস্থতার হার। তবে বাংলায় স্কুল খুলবে কবে, এনিয়ে নতুন বছরে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, 'রাজ্য়ের স্কুলগুলিকে স্যানিটাইজ বা জীবাণুমুক্ত করার জন্য় কথা হচ্ছেয যাতে স্কুল খোলা নিয়ে প্রস্তুত থাকতে পারে স্কুল কর্তৃপক্ষ। রাজ্য সরকার যেদিই সিদ্ধান্ত নেবে সেদিনই খোলা স্কুল। আমরা চাই স্বাভাবিক পঠন-পাঠন হোক। '

তবে মঙ্গলবার নীতি আয়োগের সদস্য ভিকে পল জানিয়েছেন, স্কুল খোলার আগে সব শিক্ষক-শিক্ষাকাকে টিকা দেওয়া হবে। আওতায় আসবেন শিক্ষার্থীর বাড়ির লোকজনও। এরপরে টিকাকরণের মধ্য়ে আনা হবে স্কুল যাওয়া ১২-১৮ বছর বয়সীদের। উল্লেখ্য, কেন্দ্র জানিয়েছে,  প্রথম টিকা দেওয়া হবে দেশের ৩০ কোটি লোককে। এর মধ্য়ে সবার প্রথমে পাবেন চিকিৎসক, নার্স, পুলিশ সহ প্রথম সারির কোভিড যোদ্ধারা।