Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Tathagata Roy: 'পশ্চিমবঙ্গে দলের বিলুপ্তি অবশ্যম্ভাবী', বিজেপির ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন তুলে টুইট তথাগতর

বেশ কিছুদিন ধরেই প্রকাশ্যে দলের একাধিক সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছে তথাগতকে। এমনকী, বিধানসভা নির্বাচনে অর্থ ও নারীর লেনদেনের অভিযোগও তুলেছিলেন। এর জন্য তাঁকে কটাক্ষের শিকারও হতে হয়েছে। বৃহস্পতিবার ফের এনিয়ে টুইট করেন তথাগত।

Tathagata Roy attacks bjp party again on twitter bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 18, 2021, 6:45 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দলের বিভিন্ন বিষয় নিয়েই মন্তব্য করতে দেখা যায় তাঁকে। একেবারে চাঁচাছোলা ভাবে আক্রমণ শানান। আর তা নিয়ে দলের একাংশের মধ্যে ক্ষোভও রয়েছে। তবে তা নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন তিনি। বরং নিজের মতো করেই দলকে রক্ষা করতে অত্যন্ত ব্যস্ত রয়েছেন। কয়েকদিন আগে দলের একাংশের বিরুদ্ধে নারী (Woman) ও অর্থ (Money) লেনদেনের অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। যার জেরে তাঁকে কটাক্ষের শিকারও হতে হয়েছিল। যদিও এই বিষয়গুলিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা (BJP Leader) তথাগত রায় (Tathagata Roy)। বরং তিনি যে তাঁর নিজের অবস্থানে অনড় রয়েছেন তা এক নতুন টুইটের (New Tweet) মাধ্যমে স্পষ্ট করে দিলেন তিনি। 

বেশ কিছুদিন ধরেই প্রকাশ্যে দলের একাধিক সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছে তথাগতকে। এমনকী, বিধানসভা নির্বাচনে (Assembly Election) অর্থ ও নারীর লেনদেনের অভিযোগও তুলেছিলেন। এর জন্য তাঁকে কটাক্ষের শিকারও হতে হয়েছে। বৃহস্পতিবার ফের এনিয়ে টুইট করেন তথাগত। তিনি লেখেন, "বিজেপির শুভানুধ্যায়ীরা বলছেন, টাকা ও নারী নিয়ে আমার অভিযোগ প্রকাশ্যে নয়, দলের ভিতরে করা উচিত। আমি সবিনয়ে জানাই, সে সময় পেরিয়ে গেছে। বিজেপি আমাকে যা ইচ্ছে তাই করতে পারে। কিন্তু নিজেদের চালচলন যদি আমূল সংস্কার না করে তা হলে পশ্চিমবঙ্গে দলের বিলুপ্তি অবশ্যম্ভাবী।" অর্থাৎ তথাগত রায় স্পষ্টভাবেই বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, দল তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করলেও তাতে গুরুত্ব দিচ্ছেন না। পাশাপাশি দলের ভবিষ্যৎ নিয়েও প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন- নতুন বছরের শুরুতেই ফের 'দুয়ারে সরকার' রাজ্যে, ঘোষণা মমতার

 

 

আরও পড়ুন- টাকা না পেয়ে সদ্যোজাতকে মায়ের কোল থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ, মৃত্যু

একুশের নির্বাচনের আগে থেকেই দলের প্রার্থী বাছাই নিয়ে সরব হয়েছিলেন তথাগত। দলের রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। এরপর নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর রাজ্যে বিজেপির ভরাডুবি দেশে ফের সরব হন। কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, দিলীপ ঘোষকে নিশানা করে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছিলেন তিনি। দলের ভরাডুবির জন্য তাঁদেরই দায়ি করেছিলেন। আর তারপর থেকে যে কোনও ইস্যু নিয়েই প্রকাশ্যে দিলীপের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানান তিনি। কখনও ইংরেজি তো কখনও অন্য কোনও বিষয় নিয়ে দিলীপকে খোঁচা দেন। সম্প্রতি তার পাল্টা দিতে দেখা গিয়েছে দিলীপ ঘোষকেও। তথাগতকে দল ছেড়ে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তাতেও অবশ্য গুরুত্ব না দিয়ে পাল্টা তারও জবাব দেন তথাগত। যা নিয়ে এখনও পর্যন্ত তাঁদের মধ্যে তরজা জারি রয়েছে।  

আরও পড়ুন- দেউচা পাঁচামিতে বিজেপিকে কালো পতাকা, রাজুর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ স্থানীয়দের

উল্লেখ্য, বহু বছর ধরে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত তথাগত। ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত বঙ্গ বিজেপির সভাপতি ছিলেন তিনি। তারপর প্রায় ৯ বছর বিজেপির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যও ছিলেন। দলের প্রতি আনুগত্যের পুরস্কার স্বরূপই তাঁকে দেওয়া হয় মেঘালয়ের রাজ্যপালের পদ। রাজ্যপাল পদে মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ফের রাজনীতিতে সক্রিয় হয়েছেন তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios