১০ বছরের এক বালিকার মৃ্ত্য়ুকে কেন্দ্র করে রহস্য ঘনাল নিউ আলিপুরে। পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, জানলা দিয়ে বাইরে তাকালেই ভয় পেত মেয়ে। কীসের থেকে ভয় তা উদ্ধার করতে পারেননি অবিভাবকরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মৃত ওই বালিকার নাম স্বর্ণলিপি ভট্টাচার্য। নিউ আলিপুরের ই ব্লকে পরিবারের সঙ্গেই থাকত সে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ বিদ্যাসাগর হসপিটালে নিয়ে আসা হয় তাকে। বাড়ির লোকেরা হাসপাতালে পুলিশকে জানায়, মাঝেমধ্যে খুব ভয় পেত মেয়ে। জানলার সামনে বসে বাইরে তাকালে নাকি খুব ভয় পেত। পরশুদিন বেলা সাড়ে তিনটের সময় বাড়ির লোকেরা যখন তাকে ডাকাডাকি করে তখন কোনও সাড়া শব্দ না পেয়ে তাকে বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। 

এদিকে, বালিকার মৃত্যু নতুন  করে উস্কে দিয়েছে বেশকিছু জল্পনা। পরিবারের কথাতেই যেমন ভৌতিক রহস্যের গন্ধ পাচ্ছেন এলাকার বাসিন্দারা। কেন জানলা দিয়ে বাইরে তাকালেই মেয়েটি আঁতকে উঠত তা নিয়ে শুরু হয়েছে প্রশ্ন। অনেকে অবশ্য়  এর পিছনে পারিবারিক কোন্দলও হতে পারে বলে মনে করেছে। ইচ্ছে করে গল্প ফেঁদে ওই বালিকাকে হত্যা করা হয়েছে। এখন সবকিছুই নির্ভর করছে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ওপর। আপাতত পুলিশি তদন্তে ভরসা রাখছেন মেয়ের আত্মীয় স্বজন থেকে পাড়া প্রতিবেশী সকলেই।