নাগরিকত্ব আইন, এনআরসি এবং এনপিআর-এর বিরোধিতায় কলকাতা- সহ গোটা রাজ্য জুড়ে মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করল  তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের শীর্ষ নেতাদের থেকে শুরু করে দলীয় কর্মী, দলনেত্রীর নির্দেশে এ দিন মানব বন্ধন  কর্মসূচিতে অংশ নেন সবাই। কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজের বিধানসভা ভবানীপুরে মদন মিত্রের নেতৃত্বে এই কর্মসূচি পালিত হয়। 

এ দিন ভবানীপুরের যদুবাবুর বাজারে দলীয় কর্মীদের পাশাপাশি ছোট ছোট স্কুল পড়ুয়াদেরও নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সামিল করেছিলেন তৃণমূল নেতা। শিশুদেরকে হিন্দু, মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান-এর মতো বিভিন্ন ধর্মের প্রতিনিধি সাজিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দেওয়া হয়। মদন মিত্র বলেন, 'আমাদের দলেনেত্রীর নির্দেশে আমরা এই কর্মসূচি পালন করছি। ভারতবর্ষের মানুষ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেন। ফলে এখানে এনআরসি, সিএএ বা এনপিআর কোনওমতেই চালু হতে দেওয়া হবে না। কেন্দ্রের এই অত্যাচার মেনে নেওয়া হবে না। এই বার্তা দিতেই হাজার হাজার তৃণমূল কর্মী আজ রাস্তায় নেমেছেন।'

অন্যদিকে দক্ষিণ কলকাতার চেতলায় নিজের এলাকায় মানব বন্ধন কর্মসূচিতে যোগ দেন কলকাতার মেয়র এবং পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। স্লোগান দিয়ে নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, এই রাজ্যে এনআরসি, সিএএ বা  এনপিআর করতে দেওয়া হবে না। একই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, আধার কার্ড সংশোধনের নামে কিছু লোক এনপিআর- এর জন্য তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছে। এই ধরনের কাজ বেআইনি বলে দাবি করেন মেয়র।