এতদিন এই কথা শোনা গিয়েছিল বিজেপির মুখে। এবার খোদ গেরুয়া শিবিরের দাবি শোনা গেল তৃণমূলের মন্ত্রী সাধন পান্ডের মুখে। রাজ্য়ে ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী বলেছেন,দলে আমফান দুর্নীতির কান্ডারীদের তাড়িয়ে দিলেই হবে না । এদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করতে হবে। তৃণমূল নেতার এই বক্তব্য়কে ঘিরে রাজ্য় রাজনীতিতে শুরু হয়ে  নয়া জল্পনা। তবে কি বিজেপি মুখী সাধন ?

রাজ্য় রাজনীতির সাম্প্রতিক ইতিহাস বলছে, কদিন আগে দলের আমফান দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত নেতাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। যদিও ঘাসফুল ব্রিগেডের এই বক্তব্য লোক দেখানো বলে মন্তব্য করেন বিজেপির রাজ্য় সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন,সব জেনেও না জানার  ভান করছেন প্রশাসন। দল থেকে তাড়িয়ে কী হবে। দম থাকলে দলের দুর্নীতিগ্রস্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর করুক মমতার সরকার। এবার বিজেপি নেতার সুরেই কথা বললেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান  নেতা সাধন পান্ডে। 

সাধনবাবু বলেন, ত্রাণের দুর্নীতিকারাদের পার্টি শাস্তি দিক। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হোক। আমার মতে, দুর্নীতিগ্রস্থদের দল থেকে বের করে দেওয়াটাই শেষ কথা নয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হোক। তবে এই প্রথমবার নয়, অতীতেও আমফান নিয়ে পুরসভার সমালোচনা করেছিলেন তৃণমূলের এই নেতা। যা নিয়ে দলে শোকজের মুখে পড়তে হয় তাকে।

এদিকে সাধন পান্ডের দলকে অস্বস্তিতে ফেলার মন্ত্বব্য় নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন জল্পনা। রাজ্য় রাজনৈতিক মহলের মতে, বার বার দলকে অস্বস্তিতে ফেলে ২১-এর জল মাপছেন সাধনবাবু। এমনিতেই করোনা, আমফান ও রেশন দুর্নীতি নিয়ে জেরবার অবস্থা মমতা সরকারের। সেখানে বিরোধী শক্তি  হিসাবে বিজেপি একটা শক্ত ভিত। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, সেকথা বিলক্ষণ উপলব্ধি করেছেন সাধনবাবুও।