বাংলার দুর্গাপুজোর দখল নিতে মরিয়া বিজেপি। একাধিক পুজো কমিটির সঙ্গে বিজেপি নেতৃত্ব যোগাযোগ রাখছেন বলেও খবর। পুজোর দখল নিয়ে অনেক জায়গাতেই বিজেপি- তৃণমূল সংঘাত প্রকাশ্যে এসেছে। এবার দুর্গাপুজোকে হাতিয়ার করে নতুন আন্দোলনে নামছে তৃণমূল। 

দুর্গাপুজোর উদ্যোক্তাদের থেকে আয়কর আদায়ের প্রতিবাদে আগামী ১৩ অগাস্ট কলকাতায় ধর্নায় বসবে তৃণমূলের শাখা সংগঠন বঙ্গ জননী। রবিবার টুইট করে নিজেই এ কথা জানিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

টুইটে মমতা লিখেছেন, 'আয়কর দফতর অনেক দু্র্গাপুজো কমিটিকে কর দেওয়ার জন্য নোটিস পাঠিয়েছে। আমরা আমাদের সব জাতীয় উৎসবকে নিয়ে গর্বিত।'

 

 

গত বছরই দুর্গাপুজোর হিসেব নিয়ে কলকাতার বেশ কয়েকটি নামী পুজো কমিটির উদ্যোক্তাদের ডেকে পাঠিয়েছিল আয়কর দফতর। এ বারও ফের আয়কর দফতর পুজো উদ্যোক্তাদের নোটিস পাঠিয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের। টুইটারে সরব হয়ে মমতার দাবি, আয়কর চাপালে পুজো কমিটিগুলির কাছে তা বাড়তি বোঝা হবে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার যে গঙ্গাসাগর মেলার উপর থেকে কর  প্রত্যাহার করেছে. সেকথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। তিনি লিখেছেন, 'আমাদের দাবি, দুর্গাপুজো ও কমিটিগুলির উপর কোনও রকম কর বসানো চলবে না।'

তৃণমূলনেত্রী জানিয়েছেন, আগামী মঙ্গলবার সুবোধ মল্লিক স্কয়ারেএর প্রতিবাদে ধর্নায় বসবে তৃণমূলের 'বঙ্গ জননী' শাখা। লোকসভা নির্বাচনের পরেই দলের মহিলা নেত্রী ও কর্মীদের নিয়ে এই সংগঠন তৈরি করেছিলেন তৃণমূলনেত্রী। সকাল দশটা থেকে সন্ধে ছ'টা পর্যন্ত মঙ্গলবার তৃণমূলের ধর্না চলবে। এই ধর্নায় পুজো উদ্যোক্তাদেরও সামিল হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। 

লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই বাংলায় দুর্গাপুজোর আয়োজনে সমস্যার অভিযোগ তুলে রাজ্য সরকারকে নিশানা করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। এবার পুজো উদ্যোক্তাদের আয়কর হয়রানির অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধেই পাল্টা আন্দোলনে নামছে তৃণমূল।