কথায় বলে  'Well began is half done'.কিন্তু সেই শুরুতেই মুখ থুবড়ে পড়ল তৃণমূলের নতুন প্রচার অস্ত্র 'সোজা বাংলায় বলছি'। অন্তত তেমনই দাবি  করেছেন বিজেপির আসানসোলের  সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। টুইটারে তথ্য়  দিয়ে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ  প্রতিমন্ত্রী দেখিয়েছেন, কীভাবে ডেরেক ও'ব্রায়েনের এই উদ্য়োগ 'ফ্লপ শো'-তে পরিণত হয়েছে।  

রাজ্য়ের সাম্প্রতিক অতীত বলছে, রাস্তায় নামতে না পারলেও সোশ্য়াল মিডিয়ার প্রচারে তৃণমূলকে 'গো হারান' হারিয়েছে বিজেপি। দলের সোশ্য়াল মিডিয়ায় প্রচার যে ২১ শের নির্বাচনে বড় অস্ত্র হতে চলেছে তা ভালোই উপলব্ধি করেছেন তৃণমূল নেত্রী। দিল্লিতে যখন বিধানসভা নির্বাচনের সভায় সলতে পাকাচ্ছে বিজেপি, তখন বসে থাকল না ঘাসফুল ব্রিগেড। দলের রাজ্য়সভার সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েনকে দিয়ে শুরু হল 'সোজা বাংলায় বলছি'।    

যদিও শুরুতেই বড় ধাক্কা। রাজ্য়ে তৃণমূলের আমলে বেকারত্বের পরিস্থিতির ভালো অবস্থা দেখাতে গিয়ে বেগ পেলেন ডেরেক। বিজেপির হিসেব দেখাচ্ছে, ধুমধাম করে প্রচারের শুরু করলেও প্রথমেই সাড়া মিলল না তেমন। দেখা গেল একই হ্যাসট্য়াগ ব্য়বহার করে তৃণমূলকে টপকে গেলেন বাবুল সুপ্রিয়। এ প্রসঙ্গে টুইটারে ডেরেককে খোঁচা দিতে ছাড়েননি বিজেপি সাংসদ। 

ডেরেককে উদ্দেশ্য করে তিনি লিখেছেন, 'রাজনীতিতে ঢোকার আগে  পর্যন্ত আমি আর তুমি বন্ধু ছিলাম। স্বীকার করো তোমার সোজা বাংলায় বলছি ক্যাম্পেইন ফ্লপ করেছে। আমার টিম আমাকে যে তথ্য় দিয়েছে, তাতে দেখাই যাচ্ছে সবকিছু। স্বীকার করো যে বড় তারকারাও ফ্লপ করে। তোমার আগামী ভিডিয়োর জন্য় শুভেচ্ছা রইল। 'এই বলেই অবশ্য় থেমে থাকেননি বিজেপির যুক্তিবাদী নেতা। পরিসংখ্য়ান তুলে ধরে বাবুল দেখিয়েছেন, ডেরেক ও'ব্রায়েনের ভিডিয়ো যেখানে ১৩ঘণ্টায় ১৯০০ দর্শক পেয়েছে, সেখানে বাবুলের ভিডিয়ো মাত্র ৮ঘণ্টায় ৪০ হাজার দর্শক সংখ্য়া পেড়িয়েছে। যা প্রমাণ করে তৃণমূল সম্পর্কে মানুষ এখন কতটাই উদাসীন।  

— Babul Supriyo (@SuPriyoBabul) July 26, 2020  

রবিবারই তৃণমূলের এই প্রচার নিয়ে সোশ্য়াল মিডিয়ায় সরব হয়েছিলেন এই বিজেপি নেতা। তিনি  বলেন,  ছোটবেলায় যখন টুর্নামেন্ট খেলতাম তখন কোনও অভিজ্ঞ দাদা আমাদের কোচ হতেন। কিন্তু বড় টিম যখন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলে তখন তারা বিদেশি কোচ নিয়ে আসে। তৃণমূলে একটাই কোচ। বিজেপি সেরকম নয়। এখানে বহু নেতা রয়েছেন। তাদের অধিকাংশই অবাঙালি। তাদের কটাক্ষ করার জন্যই ক্যাম্পেনের নামকরণ হয়েছে 'সোজা বাংলায় বলছি'। তবে 'দিদিকে বলো' কর্মসূচির মতো এই প্রচারপর্বও মুখ থুবড়ে পড়বে।

রবিবার থেকেই 'সোজা বাংলায় বলছি' ক্যাম্পেন শুরু করেছে মমতা ব্রিগেড। আগামী দিনে সপ্তাহে প্রতি বুধ, শুক্র ও রবিবার সকাল ১১টায় একটি এক মিনিটের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করবেন ডেরেক ও'ব্রায়েন। যা নিয়ে মন্তব্য় করতে ছাড়েননি বাবুল। নতুন প্রচারপর্ব নিয়ে বাবুলের খোঁচা, ''তৃণমূল তার প্রচারের ট্যাগ লাইনে করেছে 'সোজা বাংলায় বলছি'। আমিও সোজা বাংলাতেই বলছি, বাংলার মানুষ বলছে তৃণমূল হঠাও-বাংলা বাঁচাও। একজন লড়াকু মহিলা হিসেবে দিদি সুস্থ থাকুন। কিন্তু ওঁর রাজনৈতিক নৃশংসতা ১৯শে হাফ হয়েছে, এবার  ২০২১ -এ সাফ হোক।''