মাস চারেক আগে মেরামতির জন্য তিনদিন যান চলাচল বন্ধ ছিল উড়ালপুলে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আগামী রবিবার অর্থাৎ ১ ডিসেম্বর ফের উল্টোডাঙা উড়ালপুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল কেএমডিএ।  বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, রবিবার সকাল ছ'টা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত উড়ালপুলের দুই দিকে দিয়েই যান চলাচল বন্ধ থাকবে। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বিকল্প রুটও।  তবে রবিবার ছুটির হওয়ার নিত্যযাত্রীদের অসুবিধা একটু হলে কম হবে বলেই আশা করা হচ্ছে।

শহরের যেকোনও প্রান্তে পৌঁছানোর জন্য উড়ালপুল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  দিনভর গাড়ি চলাচলের বিরাম নেই।  ২০১৩ সালে এই উড়ালপুলের একাংশ ভেঙে পড়ে। তারপর থেকে উল্টোডাঙা উড়ালপুলে বাস, লরির মতো ভারী গাড়ি অবশ্য চলে না। তবে শহরের রাস্তায় ছোট গাড়ি সংখ্যাও তো কম নয়! সেক্ষেত্রে গোটা একটা দিন যদি উড়ালপুল বন্ধ থাকে, সেক্ষেত্রে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হবে নিত্যযাত্রীদের। তবে দিনটা রবিবার, এই যা রক্ষে। কেএমডি-এর তরফে জানানো হয়েছে, স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্যই আগামী রবিরার অর্থাৎ ১ ডিসেম্বর উল্টোডাঙা উড়ালপুলে দুই দিকে যান চলাচল বন্ধ থাকবে।  সেদিন ভিআইপি রোড থেকে ইএম বাইপাসগামী গাড়িগুলিতে হাডকো মোড় হয়ে সিআইটি রোডে দিয়ে যেতে হবে। আর ইএম বাইপাস থেকে ভিআইপি রোডে ওঠার জন্য সিআইটি রোড হয়ে হাডকো মোড়, তারপর দূর্গাপুর ব্রিজ ধরতে হবে। 

এর আগে চলতি বছরের জুলাই মাসে স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময়েই উল্টোডাঙা উড়ালপুলের একটি স্তম্ভে বিপজ্জনক ফাটল দেখতে পান বিশেষজ্ঞরা। নিরাপত্তাজনিত কারণে তড়িঘড়ি উড়ালপুলে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। সেবার যান চলাচল বন্ধ ছিল তিনদিন।  ব্যস্ত সময়ে ব্যাপক যানজট হয় উল্টোডাঙা ও ভিআইপি রোডে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে আচমকাই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে মাঝেরহাটে ব্রিজের একাংশ। নড়চড়ে বসে রাজ্য সরকার। শহরের বিভিন্ন সেতু ও উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু হয়। এর আগে যান চলাচল বন্ধ রেখে কলকাতার একাধিক সেতু স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছে পূর্ত দপ্তর।