Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পুজোর সময় রাজ্যে বাড়তে পারে করোনার সংক্রমণ, আগেভাগে রাজ্যগুলিকে সতর্কবার্তা কেন্দ্রের

উৎসবের মরশুমে সামান্য হালকা হলেই আছড়ে পড়তে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ। তাই এই সময় অনেক বেশি সতর্ক থাকা প্রয়োজন রাজ্যগুলির। তার জন্যই রাজ্যগুলিকে কেন্দ্রের তরফে সতর্ক করা হয়েছে।

Union Home Secretary Ajay Bhalla warns states and UTs against Covid-19 complacency amid festive season bmm
Author
Kolkata, First Published Sep 29, 2021, 12:15 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রাজ্যে করোনার গতি ফের ঊর্ধ্বমুখী (Corona Situation in Bengal)। একধাক্কায় দৈনিক সংক্রমণের (Infection) পরিমাণ অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। আর মধ্যে আবার সামনেই দুর্গাপুজো (Durga Puja)। সেই সময় ভিড়ের ফলে ফের সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। যা প্রশাসনের (Administration) উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আর উৎসবের (Festival) মরশুমে সংক্রমণ যাতে বেড়ে না যায় তার জন্য আগে থেকেই রাজ্যগুলিকে (State Government) সতর্ক করল কেন্দ্র (Central)। 

উৎসবের মরশুমে সামান্য হালকা হলেই আছড়ে পড়তে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ (Corona Third Wave)। তাই এই সময় অনেক বেশি সতর্ক থাকা প্রয়োজন রাজ্যগুলির। তার জন্যই রাজ্যগুলিকে কেন্দ্রের তরফে সতর্ক করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা (Union Home Secretary Ajay Bhalla) রাজ্যের মুখ্যসচিবদের (Chief Secretaries Of States) চিঠি দিয়েছেন। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে উৎসবের মরশুমে অতিরিক্ত জমায়েত করা যাবে না। উৎসবের মুখে সংক্রমণের পরিমাণ ফের বাড়ছে। তার জন্যই আগে থেকে স্থানীয় প্রশাসককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

আরও পড়ুন- ফের বাংলায় সংক্রমণ একধাক্কায় বেড়ে ৭০০-র উপরে, শীর্ষে কলকাতা

স্থানীয় স্তরে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে কনন্টেনমেন্ট জোন বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্র। এর পাশাপাশি চিঠিতে অজয় ভাল্লা জানিয়েছেন, উৎসবের সময় পুজো ও মেলার মতো জায়গায় জমায়েত হলে ফের সংক্রমণ বাড়তে পারে। তাই জমায়েত একেবারেই করা যাবে না। কোনও জায়গায় যাতে জমায়েত না হয় সেদিকে কড়া নজর দেওয়ার জন্য আগে থেকেই প্রশাসনকে সতর্ক করা হয়েছে। করোনাকে রুখতে কিছু পরামর্শও দিয়েছে কেন্দ্র। করোনা পরীক্ষার পরিমাণ অনেক বেশি বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে চিঠিতে। আর তার সঙ্গে টিকাকরণের উপরও জোর দেওয়া হয়েছে। দেশে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত করোনার বিধিনিষেধ বাড়ানো হল বলেও জানিয়েছে কেন্দ্র।

আরও পড়ুন- মাঝসমুদ্রের ঝড়ের মধ্যে রুদ্ধশ্বাস অভিযান, করোনা আক্রান্তকে উদ্ধার করল ভারতের নৌবাহিনী

আরও পড়ুন- ১৯৪ দিনে সবচেয়ে কম সংক্রমণ, স্বস্তি দিয়ে করোনার প্রকোপ কমছে দেশে

দুর্গাপুজোর আগে হাতে বাকি রয়েছে আর মাত্র কয়েকটা দিন। সেই কারণে মার্কেটগুলিতেও ভিড় জমাতে শুরু করে দিয়েছেন সাধারণ মানুষ। বৃষ্টির ফলে ভিড় কিছুটা কম হলেও পরিস্থিতি যখনই ঠিক হচ্ছে তখনই মার্কেটে ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতি ফের একবার রাজ্যের করোনাগ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। রাজ্যে সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে কলকাতা, যা চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে বিশেষজ্ঞদের কাছে। পুজোর সময়ও কলকাতায় বহু মানুষের ভিড় হবে। জেলা থেকে বহু মানুষ কলকাতার পুজো দেখতে ভিড় জমান। ফলে সেই সময় সংক্রমণ আরও অনেকটা বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। আর এই সময় সামান্য ঢিলেমি দিলেই আছড়ে পড়তে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ। তাই এই পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭০৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। আর গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩৭ জন। রাজ্যে সংক্রমণের নিরিখে কলকাতার পরেই রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। 

Section 144 has been issued in Bhabanipur before the by election RTB

Section 144 has been issued in Bhabanipur before the by election RTB

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios