রাজ্য জুড়ে খুশির আমেজ। শুধুই একটা অনুমতিতে। সারাবছরের আনন্দ তুলতে যেন বছর শেষেই তুলে নেবে বাংলা। অবশেষে খোলা মঞ্চে সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। শনিবার রাজ্য সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়, সামাজিক দূরত্ব মেনে খোলা স্থানে অনুষ্ঠান করতে পারবেন সাংষ্কৃতিক জগত এবং যাত্রা-শিল্পীরা। তবে অবশ্যই শর্ত সাপেক্ষ।

আরও পড়ুন, আজ জগদ্ধাত্রী পুজো, কোভিড বিধি মেনেই অষ্টমীতে জমজমাট বাংলা, দেখুন ছবি

 


মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রুপঙ্কর-কৌশিকী 

সিনেমা হলের মতোই এই মুহূর্তে সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি মিললেও সভাগৃহ বা অডিটেরিয়ামেরও ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে অনুষ্ঠান করতে পারবেন তাঁরা। টানা লকডাউনে এমন বাংলার বহু শিল্পী কাজ হারিয়েছে। তবে এবার রাজ্য সরকারের তরফে সবুজ সঙ্কেত মিলতেই সবাই খুশি। রুপঙ্কর বাগচি জানিয়েছেন, এই শীতের সময়ই অনুষ্ঠান বেশি হয়। মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশে সারা বাংলা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলল।' মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জাতীয় পুরষ্কার প্রাপ্ত রুপঙ্কর। 'শিল্পী জগতের সবার পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি', বলেন কৌশিকী চক্রবর্তীও। সেই সঙ্গে অনুপম-রুপম-অরিজিত সিং এর ভক্তকূলও বেজায় খুশি।

আরও পড়ুন, একবালপুরে তরুণী খুনের কাণ্ডে গ্রেফতার দম্পতি,পরকীয়া নাকি নেশার ফাঁদ, তদন্তে পুলিশ


অডিটোরিয়ামে ৫০ শতাংশ থেকে  বড়জোর ২০০ জন পর্যন্ত অনুমতি

রাজ্যের মুখ্যসচীব আলাপন বন্দ্য়োপাধ্য়ায় জানিয়েছেন, 'উৎসব মরসুম এবছরের মতো শেষ। চালু হয়েছে লোকাল ট্রেনও। পরিস্থিতির আগের তুলনায় অনেকটাই স্বাভাবিক। রাজ্য সরকার তাই নজর দিচ্ছে সংষ্কৃতি বিভাগের প্রতি'।   তিনি আরও বলেন,' মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী সভাগৃহ  বা অডিটোরিয়ামে ৫০ শতাংশ থেকে বড়জোর ২০০ জন পর্যন্ত দর্শক নিয়ে কোভিড বিধি মেনে অনুষ্ঠান করতে পারবে।'