কথায় আছে মাঘের শীত বাঘে খায়, তেমনটাই এবার মালুম পেল বাংলা। উত্তরবঙ্গ থেকে শুরু করে দক্ষিণবঙ্গ, সোমবার থেকেই শীতের দাপট ক্রমেই বেড়ে চলেছে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে তাপমাত্রার পারদ বৃদ্ধির ফলে উত্তরের হাওয়া প্রবেশ করতে পারছিল না বাংলার বুকে। কিন্তু সেই রেশ বেশিক্ষণ স্থায়ী হল না বাংলার বুকে। রবিবার রাত থেকেই ঠাণ্ডা হাওয়া বইতে শুরু করে দুই বঙ্গেই। এরপরই তাপমাত্রার পারদ কমেছিল ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আরও পড়ুনঃ শাল-পিয়ালের বন, ইতিহাস ও রূপকথার গল্প আছে ভালকিমাচানে.

ঠাণ্ডা এখনই ইতি নয়। উল্টে আগামী ২৪ ঘন্টায় বাংলায় বৃষ্টির পূর্বাভাষ শোনালো কলকাতা আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বুধবার রাতেই উত্তরবঙ্গে শুরু হবে বৃষ্টি। ফলে সপ্তাহের শেষে জাঁকিয়ে শীত পড়তে চলেছে কলকাতার বুকে। তবে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি হলেও দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস নেই। বুধবার তাপমাত্রার পারদ কমে দাঁড়ালো ১৩.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। এদিন বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ রয়েছে ৪৪ থেকে ৯৬ শতাংশ।

আরও পড়ুনঃ উন্নয়ন খায় না মাথায় দেয়, জানে না লুসকুডি গ্রাম

কলকাতার পাশাপাশি শীতের দাপট বেড়েছে বিভিন্ন জেলায়।  বুধবার বাঁকুড়া, বর্ধমান , ব্যরাকপুর, কাঁথি , ডায়মন্ড হারবার ও দীঘায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ১১.৬, ১০.৪, ১০.৮, ৮.০, ১৩.২ ও ১২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরই পাশাপাশি উত্তরে তুষারপাতের সম্ভাবনাও প্রবল।