আপাতত জাঁকিয়ে শীত এর কোনো সম্ভাবনা নেই কলকাতায়। জেলায় জেলায় শীতের আমেজ থাকলেও কলকাতায় বেলা বাড়লে শীত উধাও হবে।  কলকাতায় আপাতত মেঘমুক্ত পরিষ্কার আকাশ। আগামী ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা তামিল নাদু ও কেরলের দক্ষিণ অংশে। শুক্রবার নতুন করে  পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে জম্মু-কাশ্মীরে।এর প্রভাবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সামান্য তাপমাত্রা বাড়তে পারে উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলি তে।


কলকাতার নুন্যতম তাপমাত্রা  ১৫ এর আশেপাশে

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর,শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ২৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। নুন্যতম তাপমাত্রা  ১৬.৫ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহরের তবে কলকাতার নুন্যতম তাপমাত্রা ১৫.৯ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহর ও শহরতলিতে, আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ- সর্বাধিক  ৯৯ শতাংশ এবং ন্যুনতম ৪২ শতাংশ।বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ২৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। নুন্যতম তাপমাত্রা  ১৫.৯ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহরের তবে কলকাতার নুন্যতম তাপমাত্রা ১৫.৮ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহর ও শহরতলিতে, আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ- সর্বাধিক  ৯৭ শতাংশ এবং ন্যুনতম ৪৪ শতাংশ। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর,বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ২৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। নুন্যতম তাপমাত্রা  ১৫.৮ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহরের তবে কলকাতার নুন্যতম তাপমাত্রা ১৬.৬ ডিগ্রি  সেলসিয়াস। শহর ও শহরতলিতে, আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ- সর্বাধিক  ৯৬ শতাংশ এবং ন্যুনতম ৩৮ শতাংশ। 

ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার আশঙ্কা
 
ঘূর্ণিঝড় বুরেভি শ্রীলঙ্কায় অবস্থান করছে। পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে গালফ অফ মানার এ অবস্থান করবে। সেখানে শক্তি সঞ্চয় করে আবার অভিমুখ পরিবর্তন করবে এই ঘূর্ণিঝড়। পশ্চিম ও দক্ষিণ-পশ্চিম অভিমুখে অগ্রসর হয়ে ঘূর্ণিঝড় তামিলনাড়ু উপকূলে আছড়ে পড়বে শুক্রবার সকালে।তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারীর কাছে রামনাথপুরমে এটি আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা। সেই সময় ঘন্টায় ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার গতিবেগ হবে বলে অনুমান আবহাওয়াবিদদের। এর প্রভাবে ইতিমধ্যেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে কেরল ও তামিলনাড়ুতে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা তামিলনাড়ু ও কেরলের দক্ষিণ অংশে। ভারী বৃষ্টি হবে পুদুচেরি অন্ধ্র প্রদেশ ও সংলগ্ন এলাকায়।ঝড়ের তাণ্ডবে কেরলের তিরুবন্তপুরম আল্লাপি সহ বেশ কিছু এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা। ক্ষতির আশঙ্কা তামিলনাড়ু, কন্যাকুমারী, রামনাথপুরয় ও শিবগঙ্গা সহ বেশকিছু জেলায়। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।


 শুক্রবার নতুন করে  পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে জম্মু-কাশ্মীরে

আরও একটি নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা আন্দামান সাগরে। ইতিমধ্যেই ঘূর্ণাবর্ত শক্তি বাড়াচ্ছে ওই সাগরের। আরও দুটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে বাংলাদেশ ও সংলগ্ন এলাকা এবং পূর্ব উত্তরপ্রদেশে। শুক্রবার নতুন করে  পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে জম্মু-কাশ্মীরে।এর প্রভাবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সামান্য তাপমাত্রা বাড়তে পারে উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলি তে। ২৪ ঘন্টা পর বৃষ্টি ও তুষারপাতের সম্ভাবনা জম্মু কাশ্মীর, লাদাখ ,হিমাচল প্রদেশ, হিমালয় সংলগ্ন রাজ্যগুলিতে। সপ্তাহান্তে তুষারপাতের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হচ্ছে সিকিম ও অরুণাচল প্রদেশের মত এলাকাতেও।