শহর কলকাতায় আকাশ মেঘলা। আদ্রতা জনিত অস্বস্তি বাড়বে। বিক্ষিপ্তভাবে দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা।রবিবার নিম্নচাপ তৈরীর সম্ভাবনা বঙ্গোসাগরে। পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও সংলগ্ন উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ হবে। বৃষ্টির পরিমাণ কমলেও দু-এক পশলা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়।শনিবার ও রবিবার বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে। এই মুহূর্তে সকাল ৯ টা ১৩ মিনিটে শহরের তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

 হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, শনিবার কলকাতায়  সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি।  এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৫ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৭৬ শতাংশ। শুক্রবার কলকাতায়  সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।   এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৬ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৯১ শতাংশ। বৃহস্পতিবার কলকাতায়  সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৭ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৯২ শতাংশ।
 

রবিবার নিম্নচাপ তৈরীর সম্ভাবনা বঙ্গোসাগরে। পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও সংলগ্ন উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ হবে। এর জেরে পূর্ব ও মধ্য ভারতে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। রবিবার থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা ওড়িশা, ছত্রিশগড়, মধ্যপ্রদেশ এলাকায়।  বুধবার পর্যন্ত ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। উড়িষ্যা সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে এর প্রভাব পড়বে।

মৌসুমী অক্ষরেখা ভুজ হয়ে মধ্যপ্রদেশের নিম্নচাপ এলাকা এবং গুজরাট, জব্বলপুর, ঝার্সুগুদা, চাঁদবালি হয়ে পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। শনিবার ও রবিবার বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে। বৃষ্টি বাড়বে উত্তরবঙ্গে। আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে দু-এক পশলা বৃষ্টির পূর্বাভাস। শনিবার ভারী বৃষ্টি হতে পারে দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়িতে। রবিবার আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও জলপাইগুড়িতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। দু'এক জায়গায় ২০০  মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী অক্ষরেখা অবস্থান করছে । বৃষ্টির পরিমাণ কমলেও দু-এক পশলা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়।বাতাসে জলীয়বাষ্প থাকায় অস্বস্তি আরও বাড়বে। মেঘলা আকাশ, বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি চলবে। রবিবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। সোমবার ওড়িশা সংলগ্ন জেলা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।