অবশেষে ৪৮ ঘণ্টা পর পাওয়া গেল রাজ্য়ের করোনা সংক্রান্ত হেলথ বুলেটিন। যেখানে ১ মে-র সঙ্গে দেওয়া হয়েছে ২ মে-র তথ্য। বুলেটিনে বলা হয়েছে। রাজ্য়ে নতুন করে ১২৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গিয়েছেন ১৫ জন। সব মিলিয়ে ২ মে পর্যন্ত কোভিড আক্রান্ত হয়ে রাজ্যে মৃত ৪৮ জন। 

মুখ্য়মন্ত্রীর চিঠির সারবত্তা নেই, পাল্টা টুইট রাজ্য়পালের.

বুলেটিন বলছে,  শনিবার রাজ্য়ে  কোভিড পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে ৭০ জন। মারা গিয়েছেন ৭ জন রোগী। যদিও খুশির  খবর এদিন আরও ৪৫ জন কোভিড আক্রান্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। পরিসংখ্য়ান বলছে, গত সপ্তাহে দিনে গড়ে কম বেশি ৯০০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছিল। নতুন বুলেটিনে দেখা যাচ্ছে, ৩০ এপ্রিল রাজ্যে ২০৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর শুক্রবার ১ মে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৪১০ জনের। এবং স্বাস্থ্য দফতরের হিসাবে অনুযায়ী গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত রাজ্যে ২০,৯৭৬ জন মানুষের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। 

রাজ্য়পালের জোড়া চিঠির কড়া জবাব মুখ্য়মন্ত্রীর,সুপ্রিম কোর্টের মামলার উল্লেখ লেটারে...

স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ৪৮ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা-আক্রান্ত হয়েছেন ১২৭ জন। ৩০ এপ্রিল স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫৭২। সেই তথ্য অনুযায়ী, শনিবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন  প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত রাজ্যে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬২৪ জন।

এনআরএস-এ ৮ জনের শরীরে করোনা, আক্রান্তদের ৬ জন স্ত্রী রোগ বিভাগে ভর্তি

তবে মাঝে স্বাস্থ্য ভবনের এই বুলেটিন না প্রকাশিত হওয়ায় এর 'স্বচ্ছতা' নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্য়পাল। রাজ্য়কে করোনার সংখ্যা প্রকাশে কোনও লুকোচাপা না করতে বলেছেন তিনি। যদি নবান্ন সূত্রে খবর, প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে একদিন করোনা নিয়ে বুলেটিন প্রকাশ করা যায়নি বলে জানিয়েছেন রাজ্য় সরাকরে বেশকিছু কর্তা। যদিও এই সংখ্যা রাজ্য়ে করোনার আসল চিত্র নয় বলে দাবি করেছে বিজেপি।