গতকালের থেকে ছাড়িয়ে গেল রেকর্ড সংখ্যা। রবিবার স্বাস্থ্য় দফতরের বুলেটিন বলছে, রাজ্য়ে একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৯৫। যার জেরে বাংলায় বর্তমানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২২,১২৬ জন। পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে সংক্রমণে।  এর ফলে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭৫৭।

স্বাস্থ্য় দফতরের বুলেটিন বলছে, রবিবার পর্যন্ত রাজ্য়ে ১৪,৭১১ জনকে চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ১১ হাজারেরও বেশি টেস্ট হয়েছে । তবে দিনে দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা চিন্তায় রেখেছে স্বাস্থ্য় ভবনকে।

বাসে ভিড়ে ঠাসা যানবাহনে সামাজিক দূরত্ব যে মানা সম্ভব হচ্ছে না তা ভালোই টের পাচ্ছে সরকার। এমনকী প্রাইভেট বাস পর্যাপ্ত না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ভিড় বাসেই উঠতে হচ্ছে সবাইকে। তাই স্বাস্থ্য়বিধি মানার কোনও অবকাশই থাকছে না। যদিও রাজ্য় সরকারের দাবি, করোনায় আক্রান্তের হারের সঙ্গে সঙ্গে সুস্থ্য়তার হার অনেক বেশি। যা সাধারণ মানুষের মনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

জানা গিয়েছে, শীঘ্রই প্লাজমা থেরাপির মাধ্য়ে করোনার চিকিৎসা শুরু করবে মেডিকা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শনিবার মেডিকার তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে তাঁদের এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। মেডিকার তরফে জানানো হয়েছে, শীঘ্রই করোনা চিকিৎসায় তাঁরা প্লাজমা থেরাপির সাহায্য নেবেন। ইতিমধ্যেই প্লাজমা থেরাপিতে করোনার চিকিৎসার তোড়জোড় শুরু হয়েছে হাসপাতালটিতে। 

দিল্লিতে এরআগেই প্লাজমা চিকিৎসা শুরু হয়েছে। পরীক্ষামূলকভাবে এই চিকিৎসা পদ্ধতি আশা জাগিয়েছে আগেই। যদিও এই পদ্ধতি নিয়ে আরও পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে।