ধর্মস্থানের ছাড়পত্রের পর এবার বাংলায় খুলতে চলেছে বেসরকারি ও সরকারি অফিস। আগামী ৮ জুন থেকে খুলে যাবে এই অফিসগুলি। শুক্রবার নবান্নে এমনই ঘোষণা করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।  

এদিন তিনি বলেন, ১০০ শতাংশ লোকবল নিয়ে অফিসগুলি ওই সময় থেকে ফের  কাজ শুরু করতে পারবে। তবে স্বাস্থ্য়বিধি মেনেই এই কাজ করতে পারবে কর্তৃপক্ষ। কর্মীদের কথা মাথায় রেখে  প্রতিদিন স্যানিটাইজ করতে হবে অফিস। 

তবে শুধু অফিস নয়। ১ জুন থেকে বাংলায় খুলে যাচ্ছে মন্দির, মসজিদ, গির্জা, গুরুদ্বার৷ যদিও মুখ্যমন্ত্রী  বলেছেন, কোনও ধর্মস্থানে একসঙ্গে ১০ জনের বেশি ঢুকতে পারবেন না। মাস্ক পরে ঢুকতে হবে ধর্মস্থানে।  মন্দির-মসজিদেও রাখতে হবে  স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা। তবে ধর্মস্থানে কোনও জমায়েতও করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই বলেই থমে থাকেননি মুখ্যমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে রাজ্য়ে শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনের পরিস্থিতি উল্লেখ করছেন মুখ্যমন্ত্রী।  তিনি বলেন,  ট্রেনে গাদাগাদি করে যদি এতো লোক আসতে পারে, তাহলে মন্দির, মসজিদ, গির্জা কী দোষ করল? কেন্দ্র এমন করলে, কেন আমি সব বন্ধ রাখব? ১ জুন থেকে মন্দির, মসজিদ, গির্জা, গুরুদ্বার খুলবে। সকাল ১০টা থেকে মন্দির খোলা যাবে৷ এই সংকট থেকে মুক্তি পেতে মানুষ একটু প্রার্থনা করার সুযোগ পাবে।